sponsor

sponsor

Slider

আন্তর্জাতিক

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

Facebook Like Box

» » গরিবের চাল নিয়ে ‘চালবাজি’, ডিলার আটক




কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে ১০ টাকা কেজি দরে বিক্রির জন্য সরকারিভাবে বরাদ্দ করা চাল নিয়ে অনিয়মের অভিযোগে এক ডিলার ও তাঁর সহযোগীকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

আজ বৃহস্পতিবার ভোররাত ৩টার দিকে র‌্যাব ভৈরব ক্যাম্পের অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিউদ্দিন মোহাম্মদ যোবায়েরের নেতৃত্বে উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের ডিলার মিজানুর রহমান ও তাঁর সহযোগী কামরুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে।

সকালে র‌্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের অধিনায়ক রফিউদ্দিন মোহাম্মদ যোবায়ের দাবি করেন, এ সময় উপজেলার শম্ভুপুর রেলগেট এলাকায় অভিযান চালিয়ে কামরুল ইসলামের একটি গুদাম থেকে অবৈধভাবে মজুদ করা ১৬০ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়েছে।

‘এ ছাড়া ডিলার মিজানুর রহমানের ছনছাড়া এলাকার গুদামে ১২০ বস্তা চাল মজুদ থাকার কথা থাকলেও সেখানে ২৪ বস্তা চাল পাওয়া যায়। বাকি ৯৬ বস্তা চালের সঠিক হিসাব পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ সেখান থেকে ৯৬ বস্তা চাল গায়েব হয়ে গেছে।’

র‌্যাব অধিনায়ক আরো দাবি করেন, ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিক্রির জন্য উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নে দুজন ডিলার নিয়োগ দেওয়ার কথা। কিন্তু সেখানে মিজানুর রহমানকেই একমাত্র ডিলার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। ফলে ওই ইউনিয়নের জন্য বরাদ্দ করা ৩৭৬ বস্তা চাল তাঁকেই সরবরাহের জন্য ভৈরব উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা মো. শরীফ মোল্লা অনুমতিপত্র দেন।

বরাদ্দ করা এই চাল চলতি মাসের ৯ তারিখ ভৈরব বাজারে খাদ্যগুদাম (এলএসডি গোডাউন) থেকে  সরবরাহ নিয়ে বিতরণের কথা ছিল। কিন্তু ডিলার মিজানুর রহমান এ সময় নিজের নামে ১২০ বস্তা এবং তাঁর সহযোগী কামরুল ইসলামের নামে ১৬০ বস্তা চাল উত্তোলন করেন বলে র‍্যাবের দাবি।

র‍্যাব জানায়, মিজানুর তাঁর নিজ এলাকা ছনছাড়া গ্রামের একটি গুদামে ১২০ বস্তা চাল রেখেছেন দাবি করলেও সেখানে পাওয়া গেছে মাত্র ২৪ বস্তা। বাকি চালের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply