sponsor

sponsor

Slider

আন্তর্জাতিক

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

Facebook Like Box

» » » নিষিদ্ধ সময়ে শাস্তি এড়াতে শিশুদের দিয়ে ইলিশ ধরাচ্ছে জেলেরা (ভিডিও)




নিষেধাজ্ঞার মধ্যে নতুন কৌশলে চলছে ভোলার মেঘনা- তেঁতুলিয়ায় মা ইলিশ নিধন। প্রশাসনের কঠোর নজরদারি আর আইনি জটিলতা এড়াতে প্রাপ্ত বয়স্কদের পরিবর্তে ইলিশ ধরার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিশুদের। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারী এসব শিশুদের আটক করতে গিয়েও বিড়ম্বনায় পড়তে হয় আইন শৃঙ্খলারক্ষক বাহিনীকে।


 দরিদ্রতা ও বড়দের প্ররোচনায় এমন অপরাধে বাধ্য হচ্ছে শিশুরা। তবে এসব অপকৌশল গ্রহণকারী অভিভাবকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানালেন জেলা প্রশাসক।


নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই সদর উপজেলার মাঝের চরের মেঘনায় ইলিশ ধরছে শিশু সহোদর। আইন শৃঙ্খলারক্ষক বাহিনী দুই ভাইকে আটক করলেও কোন ব্যবস্থা নিতে পারেনি বয়সের কারণে। অভিযানের প্রথম পাঁচ দিনে জেলায় যারা আটক হয়েছে তার প্রায় অর্ধেক শিশু। যাদের নামমাত্র জরিমানা ও মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। জেল-জরিমানামুক্ত থেকে ইলিশ শিকারের জন্য এমন কৌশলে শিশুদের ব্যবহার করছেন অভিভাবকরা।

প্রাপ্ত বয়স্ক জেলেরা নদীতে জাল ফেলার পর গ্রেফতার এড়াতে নৌকায় শিশুদের রেখে তীরে চলে যায়। আবার ওই শিশুদের সহায়তায় নির্দিষ্ট সময় জাল তুলে নেয়া হয়। এমতাবস্থায় শিশুদের নিরুৎসাহিত করতে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে নদী ও জেলে পল্লীতে চলছে সচেতনতামুলক প্রচারাভিযান।

ইলিশ শিকারের দায়ে আটক এক শিশু বলল, 'আমি স্কুলে পড়ি। আমারে গাঙের মধ্যে জাল দিয়ে পাঠাইছে। কয়, যা।'

শিশুদের ইলিশ শিকারের কারণে অভিযান পরিচালনা চ্যালেঞ্জিং উল্লেখ করে ভোলা সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এরপরও অভিযান সফল করতে তাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, 'আশা করছি আমরা সফল হব। এই ছোট ছোট বাচ্চারা ঝুঁকিপূর্ণ পেশা এবং নিষিদ্ধ সময়ে মাছ ধরা থেকে বিরত হবে বলে আমরা আশা রাখছি।'

আর সচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচার- প্রচারণার বাড়ানোর পাশাপাশি শিশুদের দিয়ে এমন অপকৌশল গ্রহণকারী অভিভাবকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানালেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক।

নিষেধাজ্ঞার প্রথম ৫দিনে লক্ষাধিক মিটার জালসহ ৭০জন ইলিশ শিকারিকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে ২৯ জন শিশু

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply