sponsor

sponsor

Slider

আন্তর্জাতিক

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

Facebook Like Box

» » সেন্টমার্টিন নিয়ে নতুন যে সিদ্ধান্তগুলো আসছে



সেন্টমার্টিনে ইচ্ছে মতো আর ভ্রমণ করা যাবে না। আগামী ১ মার্চ থেকে সেন্টমার্টিন যেতে অনলাইনে নিবন্ধন লাগবে। তাও শুধু দিনের বেলায় সেখানে যেতে পারবেন পর্যটকরা।


 গত ২৩ সেপ্টেম্বর সেন্টমার্টিন দ্বীপ রক্ষায় গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আরে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে সেন্টমার্টিন বিষয়ে।

জানা গেছে, পর্যটকদের কারণে বিপন্ন হতে চলা দ্বীপটিকে রক্ষা করতে সেখানে রাতযাপন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া দ্বীপের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ছেঁড়া দ্বীপ ও গলাচিপা অংশে পর্যটকদের প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে। দ্বীপে কোনরকম মোটরসাইকেল, গাড়ি কিংবা স্পিডবোট চলাচল করতে পারবে না। আর কচ্ছপের প্রজনন ব্যাহত হওয়ায় রাতের বেলায় দ্বীপে আলো জ্বালানো যাবে না।

দ্বীপে চলাচলকারী জাহাজের সংখ্যা বর্তমানে ২০টি। যা আগামীতে কমিয়ে দু'টিতে নামিয়ে আনা হবে। আর প্রতিদিন ৫শ’র বেশি পর্যটক সেখানে যেতে পারবেন না।

দ্বীপে নতুন করে কোন ধরণের স্থাপনা নির্মাণ করা যাবে না। সেখানে কোনো জেনারেটর ব্যবহার করা যাবে না। বিদ্যুতের জন্য সৌরশক্তি ব্যবহার করতে হবে। আর দ্বীপে জমি বেচাকেনাও বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে।

জানা গেছে, দ্বীপটির সব হোটেল-মোটেল ও স্থাপনা উচ্ছেদ করে জমি অধিগ্রহণ করা হবে। আর বসবাসকারীদের অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হবে।

আগামী ৬ মাস থেকে ১ বছরের মধ্যে এসব সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। দীর্ঘ মেয়াদে দ্বীপটি শুধু জীব বৈচিত্র্যের জন্য সংরক্ষণ করা হবে।
সেন্টমার্টিন দ্বীপে ৬৮ প্রজাতির প্রবাল আছে। ১৫১ প্রজাতির শৈবাল, ১৯১ প্রজাতির মোলাস্ক বা কড়ি-জাতীয় প্রাণী, ৪০ প্রজাতির কাঁকড়া, ২৩৪ প্রজাতির সামুদ্রিক মাছ, ৪ প্রজাতির উভচর, ২৮ প্রজাতির সরীসৃপ, ১২০ প্রজাতির পাখি, ২০ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী রয়েছে। এছাড়া ১৭৫ প্রজাতির উদ্ভিদ এবং ২ প্রজাতির বাদুড় ও ৫ প্রজাতির ডলফিন দেখা যায়।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply