sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

নির্বাচন

জাতীয়

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » নরসিংদীতে যাত্রীবাহী দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে চার জন নিহত

দুই বাসের মুখোমুখি সংর্ঘষে নিহত ৪, আহত ২০ দুই বাসের মুখোমুখি সংর্ঘষে নিহত ৪, আহত ২০

হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ২০ জন। শুক্রবার বেলা ১১টায় ঢাকা-সিলেট মহসড়কের জেলার শিবপুর উপজেলার সৈয়দনগর নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। নিহতদের মধ্যে তিন জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন, জেলার শিবপুরের ঘোড়ারগাঁও গ্রামের আবদুল হকের ছেলে আলাউদ্দিন (৬০), লোকাল বাসের চালকউত্তর নাগরিয়াকান্দি গ্রামের তাহের মিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেন (৫০), শিবপুরের কারাচর এলাকার নাছির উদ্দিনের স্ত্রী রেহেনা বেগম (৪৫)। পুলিশ জানায়, বেলা ১১ টায় ঢাকা থেকে বি-বাড়িয়া গামী রয়েল পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ও মনোহরদী থেকে নরসিংদীগামী নিরাপদ পরিবহনের লোকাল বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুটি বাসই দুমড়ে মুচড়ে যায়। দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই ২ জন নিহত হয়। আহত হয় অন্তত ২২ জন। আহতদের নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা ২ জনকে মৃত ঘোষণা করে। আহতদের মধ্যে আশঙ্কা জনক অবস্থায় ৮ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দূর্ঘটনা কবলিত আহত বাসের যাত্রী আবু সুলেমান বলেন, আমরা বাসের সামনে বসা। হঠাৎ দেখি আরেকটা বাস আমাদের গাড়ীর উপর উঠিয়ে দিচ্ছে। আমি তাৎক্ষতিন লাফ দিয়ে বাসের পেছনে চলে আসি। এরই মধ্যে বিকট শব্দ। ঘটনাস্থলেই দুই জন মারা যায়। অনেক লোক আহত হয়। পরে আমাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। নিহত চালক আনোয়ার হোসেনের বোন পলি আক্তার বলেন, সকালে ভাই গাড়ি নিয়ে বাসা থেকে বের হয়। পরে খবর পাই গাড়ি এক্সিডেন্ট হয়েছে। এসে দেখি আমরা ভাই আর নাই বলতে বলকেই কন্নায় ভেঙ্গে পড়েন। শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, বেপরোয়া গতির কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। ঘাতক দুটি বাসকে আটক করা হয়েছে। এই ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply