sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » ইংরেজি নববর্ষ পালন করে না যেসব দেশ



গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আমরা ২০১৯ সালে এসে পৌঁছেছি। প্রতি বছর ডিসেম্বরের ৩১ তারিখ পুরনো বছরকে পেছনে ফেলে নতুন বছর স্বাগত জানানো হয়। বেশিরভাগ দেশ এই রীতি গ্রহণ করলেও এখনও কিছু দেশ গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসরণ করে না।
আমরা যেটাকে ইংরেজি সাল বলি সেটাই মূলত গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার। এটি সৌর বছর। নানা পরিবর্তন, পরিমার্জন, ও বিবর্তনের মধ্য দিয়ে বর্ষ গণনায় এই বর্তমান কাঠামোটি এসেছে।
অনেক দেশ গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারকে এখনও গ্রহণ করেনি। এর মধ্যে রয়েছে-উত্তর কোরিয়া, সৌদি আরব, নেপাল, ইরান, ইথিওপিয়া ও আফগানিস্তান। এসব দেশে ইংরেজি নববর্ষ পালন করা হয় না। আবার ইসরায়েল গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসরণ করলেও ইংরেজি নববর্ষ পালন করে না।
আরব দেশে ১ জানুয়ারিতে হিজরি অর্থাৎ নববর্ষ শুরু হয় না। ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলঙ্কা কিংবা তিউনিসিয়ায় নতুন বছর শুরু আগস্ট থেকে অক্টোবর মাসের মধ্যে। নভেম্বরে এবং মার্চ মাসে যথাক্রমে চীন আর ইতালিতে নববর্ষ শুরু হয়।
উত্তর কোরিয়া তাদের নিজস্ব ক্যালেন্ডার অনুসরণ করে। আমাদের ২০১৮ সাল মানে উত্তর কোরিয়ানদের সেটা ১০৭ সাল। অর্থাৎ ২০১৯ তাদের হিসাব অনুযায়ী ১০৮ সাল। ১৯১২ সাল থেকে উত্তর কোরিয়ার নিজস্ব সাল গণনা শুরু হয়।
চীনেরও নিজস্ব ক্যালেন্ডার আছে। বলা হয়ে থাকে, বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয়তার তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে চীনের ক্যালেন্ডার। চীনে অবশ্য গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অফিসিয়ালি ব্যবহার করা হয়। আর নিজস্ব ক্যালেন্ডার ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন প্রথাগত কাজ ও উদযাপনে।
চীনের পাশাপাশি আরও কয়েকটি ইহুদি ও মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ তাদের নিজ নিজ ক্যালেন্ডার অনুযায়ী নববর্ষ পালন করে থাকে। তবে এবারই প্রথম সৌদি আরবের কয়েকটি জায়গায় ইংরেজি নববর্ষকে স্বাগত জানাতে উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply