sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » বাবা হলেন রোহিত শর্মা


বছর শেষে গেম-চেঞ্জিং মোমেন্ট হিটম্যানের জীবণে। বাবা হলেন রোহিত শর্মা। মেলবোর্নে ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ের দিনেই এল সুখবরটা। স্ত্রী রীতিকার প্রেগন্যান্সির বিষয়ে রোহিত মুখ খুলেছিলেন কিছুদিন আগে। আর বর্ষশেষে সীমিত ওভারে কোহলির ডেপুটির বাবা হওয়ার খবর নিশ্চিত করল বিসিসিআই। রোহিতের স্ত্রী রীতিকা কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন বলে সূত্রের খবর।

বাবা হওয়ার খবরে স্বভাবতই টেস্ট জয়ের আনন্দ দ্বিগুন হয়ে গিয়েছে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সফল এই ওপেনারের। মেলবোর্ন টেস্ট জয়ের দিনেই রীতিকার তুতো বোন সীমা খান সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিকার কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ার খবরটি জানান। আর খবর ছড়িয়ে পড়তেই উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে রোহিত অনুরাগীদের মধ্যে। অন্যদিকে সুদূর অস্ট্রেলিয়ায় সতীর্থদের সঙ্গেই মুহূর্তটি উপভোগ করে নেন সীমিত ওভারে কোহলির ডেপুটি।

Advertisement


আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে বিয়ার পান, মদ্যপ শাস্ত্রীকে নিয়ে বিতর্কের ঝড়



সক্রিয় থাকলেও ব্যাক্তিগত জীবণের টানাপোড়েনকে সোশ্যাল মিডিয়ার বিষয়বস্তু হতে দেন না রোহিত-রীতিকা জুটি। তাই রীতিকার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর আড়ালেই রেখেছিলেন রোহিত। তবে সম্প্রতি তাঁর ধৈর্য্যের বাঁধ ভাঙে। অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ককে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রোহিত তাঁর স্ত্রীর প্রেগন্যান্সির বিষয়টি স্বীকার করে নেন এবং জানিয়ে দেন তাঁর বাবা হতে চলার বিষয়টি। হিটম্যান বলেন, ‘বাবা হওয়ার মুহূর্তের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। আমার জীবণ বদলে দেবে ওই মুহূর্তটা।’

আরও পড়ুন: হারের পর স্মিথ-ওয়ার্নারকে দলে চাইছেন পেইন



সতীর্থরা মজা করে রোহিতকে ‘ভুলোমনা’ বলে ডাকেন। তবে তাঁর এই ভুলোমনা থাকার দিন যে অবশেষে শেষ হতে চলেছে, তা স্বীকার করে নেন রোহিত নিজেই। চলতি মাসের শুরুতে ছিল রোহিত-রীতিকার তৃতীয় বিবাহবার্ষিকী। মেলবোর্ন টেস্টের প্রথম ইনিংসে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে গুরুত্বপূর্ণ অর্ধশতরান। এরপর টেস্ট জয়ের দিনে বাবা হওয়ার খবরে আপ্লুত রোহিত ফিরছেন দেশে। নতুন বছরে স্ত্রী-সন্তানের পাশেই থাকবেন তিনি। তাই আগামী ৩ জানুয়ারি সিডনিতে শুরু হতে চলা চতুর্থ টেস্ট খেলা হছে না রোহিতের। পরিবর্তে দলে আসতে পারেন হার্দিক পান্ডিয়া

«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply