sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট পদে ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভানকা!




বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন জিম ইয়ং কিম। এরইমধ্যে জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছে কে হবেন পরবর্তী প্রধান। সেই সম্ভাব্য তালিকায় আছে জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালির নাম। তবে ওই তালিকায় থাকা একটি নাম শুনেই রীতিমতো চমকে যাওয়ার মতো। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট

ইভানকা ট্রাম্প। লন্ডনভিত্তিক গণমাধ্যম দ্য ফিন্যান্সিয়াল টাইমস এ খবর দিয়েছে। গত সোমবার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই হঠাৎ সংস্থাটির প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন জিম ইয়ং কিম। তিনি তাঁর দ্বিতীয় মেয়াদে তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আগামী মাসের শুরুতে নতুন প্রধানের পদে মনোনয়ন গ্রহণ শুরু হবে এবং এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে পরবর্তী প্রধানের নাম ঘোষণা করা হতে পারে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক বোর্ড। ২০১৭ সালে সৌদি-প্রদত্ত নারী উদ্যোক্তাদের সহায়তায় বিশ্বব্যাংকের এক বিলিয়ন ডলার তহবিল সংগ্রহের ক্ষেত্রে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন ইভানকা। ইভানকার নাম প্রকাশের পর এ নিয়ে সমালোচনাও শুরু হয়েছে। ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের সিনেটর টেড লিউ তীর্যক মন্তব্য করে বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের যে কেউ বিশ্বব্যাংকের প্রধান হতে পারেন। তবে সবচেয়ে যোগ্য হলেন দেশের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মেয়ে ইভানকা ট্রাম্প, যিনি কি না নিজের ফ্যাশন হাউজটিও চালাতে পারেননি।’ একে হাস্যকর প্রস্তাব হিসেবে উল্লেখ করেছেন ডেমোক্র্যাট টম স্টেয়ার। এখানে পরিবারতন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছেন তিনি। তাঁর ভাষায়, ‘পরিবারতন্ত্র দুর্নীতিরই আরেকটি উপায়মাত্র। আমি মোটেই অবাক হচ্ছি না, তবে ভাঁড়ামির মাত্রাটা অবিশ্বাস্য পর্যায়ে চলে গেল।’ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অভিসংশনের মাধ্যমে অপসারণের প্রচারণায় অর্থের জোগানদাতা হচ্ছেন টম স্টেয়ার। নিকি গত মাসে জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের পদ ছেড়ে দেন। অন্যদিকে ইভানকা ট্রাম্প ও নিকি হ্যালির পাশাপাশি প্রতিবেদনটিতে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের আন্তর্জাতিক তহবিলের প্রধান ডেভিড ম্যালপাস ও যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন এজেন্সির প্রধান মার্ক গ্রিনের নামও বলা হয়েছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরপর প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই অলিখিত নিয়মে ব্যাংকটির সর্বোচ্চ শেয়ারহোল্ডার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সব সময় এর নেতৃত্ব বাছাইয়ের কাজটি করে। যদিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিয়োগপ্রাপ্তরা সব সময় সফলতা দেখাতে পারেননি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থবিভাগ বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছে, ইভানকার বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট প্রার্থিতার ব্যাপারে তাদের কোনো মন্তব্য নেই। এ বিভাগের এক মুখপাত্র জানান, তারা বেশ কয়েকজনের নাম প্রস্তাব পেয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রার্থী নির্ধারণে অভ্যন্তরীণ পর্যালোচনা শুরু করেছেন। ২০১২ সালে প্রথম প্রতিযোগিতাপূর্ণ নির্বাচন পদ্ধতিতে প্রেসিডেন্ট পদে বসেন কিম ইয়ং জিম। সেই সময় বোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়, এখন থেকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পদ্ধতি হবে উম্মুক্ত, মেধাভিত্তিক ও স্বচ্ছ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply