sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » লিবিয়ায় যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবের মধ্যেই ত্রিপোলিতে সংঘর্ষে ৪ নিহত




লিবিয়ার চলমান সংকট সমাধানে যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবের মধ্যেই ত্রিপোলিতে সংঘর্ষে অন্তত ৪ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২০ জন। দেশটিতে নতুন করে এ হামলার নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ। এদিকে, দেশটির পূর্বাঞ্চল নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী খলিফা হাফতার বাহিনী যেভাবে ত্রিপলিতে হামলা চালিয়েছে তা সেনা অভ্যুত্থানের সামিল বলে দাবি লিবিয়ার উপ- প্রধানমন্ত্রীর। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপলিতে দফায় দফায় গোলাবর্ষণ করা হয়। এতে বেশ কয়েকজন হতাহত হন। জাতিসংঘ সমর্থিত লিবিয়ার সরকারী বাহিনী এ ঘটনায় দেশটির পূর্বাঞ্চল নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী খলিফা হাফতার বাহিনীকে দোষারোপ করলেও তা অস্বীকার করেছে বাহিনীটি। যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবের মধ্যে ত্রিপলিতে নতুন করে হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ। সরকারি বাহিনী ও খলিফা হাফতার বাহিনীর মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনায় দেশটিতে বাস্তুচ্যুত মানুষের সংখ্যা বাড়ছেই বলে জানায় সংস্থাটি। জাতিসংঘের মুখপাত্র স্টেফেন দুজারিক বলেন, ত্রিপলিতে যে সহিংসতা চালানো হচ্ছে তা কাম্য নয়। এতে সবচেয়ে ক্ষতি হচ্ছে সাধারণ মানুষের। জীবন বাঁচাতে তারা শহর ছাড়ছেন। সংঘর্ষে এরইমধ্যে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বাস্তুহারা হয়েছে অন্তত ২০ হাজার মানুষ। এদিকে, ত্রিপলিতে খলিফা হাফতার বাহিনীকে মোকাবেলার ক্ষমতা সরকারি বাহিনীর রয়েছে বলে দাবি করেছেন দেশটির উপ-সহকারী প্রধানমন্ত্রী আহম্মেদ মেইত্যাগ। এমনকি হাফতার বাহিনীর হামলাকে সেনা অভ্যুত্থানের সামিল বলেও জানান তিনি। আহম্মেদ মেইত্যাগ বলেন, আমাদের অবস্থান একেবারে পরিস্কার। খলিফা হাফতার বাহিনী যেখান থেকে এসেছিলো তাদের সেখানে ফিরে যেতে হবে। শহর জুড়ে তারা যা করছে তা যুদ্ধাপরাধের সামিল। তাদেরকে প্রতিহতের ক্ষমতা সরকারের রয়েছে। এরমধ্যেই, মস্কোতে আরব লিগের এক সম্মেলনে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ জানান, লিবিয়ায় শান্তি প্রক্রিয়া তৈরিতে আরব দেশগুলোর সাথে একসঙ্গে কাজ করবেন তারা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply