sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » রুটের শতকে উইন্ডিজকে সহজেই হারাল ইংল্যান্ড




জন্মেছেন বার্বাডোজে। খেলছেন ইংল্যান্ডের হয়ে। ওই জোফরা আর্চারের পেসেই দ্রুত গুটিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস। তিনটি উইকেট নিয়েছেন তিনি। ৪৪ ওভার চার বলে ২১২ রানে অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর ওই টার্গেট তাড়া করতে কোনো সমস্যাই হল না চলতি বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলা ইংল্যান্ডের। দুই উইকেট হারিয়ে ৩৩ ওভার ১ বলেই ২১৩ করে ইংল্যান্ড। জো রুট শতক পেলেন। ৯৪ বলে ১০০ রান করেন তিনি। এমনিতে পুঁজি অল্প। ওই পুঁজিতে কটরেল, ওশানেরা বল হাতে কোনো প্রতিরোধই গড়তে পারলেন না। বেয়ারস্টো ৪৫ ও ওকস ৪০ রান করেন। দুজনকেই ফেরান গাব্রিয়েল। তবে যা করার রুটই করে ফেলেন। ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ থেকে ফেরেন তিনি। ওই জয়ে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে চলে গেল ইংল্যান্ড। ছয় নম্বরে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংল্যান্ডের পেসার আর্চার ৯ ওভারে ৩০ রান দিয়ে তিন উইকেট নিয়েছেন। তিনটি উইকেটের মধ্যে আছেন নিকোলাস পুরান; যার সঙ্গে তিনি বয়সভিত্তিক দলে খেলেছিলেন। অন্যজন হচ্ছেন ব্রার্থওয়েট, যিনি আর্চারেরই এলাকার মানুষ। এ ছাড়া শেষদিকে কটরেলকে আউট করেন তিনি। আর্চারের পাশাপাশি উডও তিনটি উইকেট পেয়েছেন। এ ছাড়া রুট দুটি, প্লাঙ্কেট ও ওকস একটি করে উইকেট পান। নিকোলাস পুরান ও শিমরন হেটমেয়ার ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যানই তেমন দাঁড়াতে পারেননি। পুরান করেন ৭৮ বলে ৬৩ রান। হেটমেয়ার করেন ৩৯ রান। গেইল ৩৬ রানে আউট হন। ওকসের বলে থার্ডম্যানে ক্যাচ দেন ক্রিস গেইল। উড দৌড়ে এসে হাতে নিয়েছিলেনও। কিন্তু হাত ফসকে বের হয়ে যায়। ম্যাচের বয়স তখন মাত্র ছয় ওভার। সাউদাম্পটনে ইংলিশরা বেশ ভড়কেই যান ওই ক্যাচ মিস হওয়ায়। ম্যাচ না আবার বের হয়ে যায়! ব্যাটসম্যান যেখানে গেইল! ভয়টাকেই কী না শক্তি করল মরগানের দল। চেপে ধরল ক্রিস গেইলকে। সেই গেইল জীবন পাওয়ার পর ছয় হাঁকিয়েছেন ঠিকই, তবে মাত্র একটি। ৪১ বলে ৩৬ রান করে প্লাঙ্কেটের বলে আউট হন তিনি। গেইলের আগেই অবশ্য লুইসকে দুর্দান্ত ইয়র্কারে বোল্ড করেন ওকস। গেইলের পর আউট হয়ে যান হোপও। চলতি আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে আজ শুক্রবার সাউদাম্পটনে বৃষ্টির আশঙ্কা মাথায় রেখে টস জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় স্বাগতিক ইংল্যান্ড। বৃষ্টির কারণে এবারের আইসিসি বিশ্বকাপ জৌলুস হারাচ্ছে। একের পর এক ম্যাচ পরিত্যক্ত করতে বাধ্য হচ্ছেন ম্যাচ অফিশিয়ালরা। ম্যাচ পরিত্যক্তের রেকর্ড গড়েছে এবারের ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস বিশ্বকাপ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply