sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » রিজার্ভ ডে'তে গেলো ভারত-নিউজিল্যান্ড সেমিফাইনাল




কি খেলটাই না দেখালো বৃষ্টি! লিগ পর্বে একের পর এক ম্যাচ ভাসিয়ে নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের হিসেব উল্টাপাল্টা করে দিয়ে এবার হানা দিয়েছে সেমিফাইনালে। দিনের পুরো খেলা ভেসে না গেলেও ভারত এবং নিউজিল্যান্ডকে রিজার্ভ ডে’তে যেতে বাধ্য করলো বৃষ্টি। বুধবার (১০ জুলাই) খেলা শুরু হবে ঠিক যেখান থেকে শেষ হয়েছে। অর্থাৎ ৪৬.১ ওভারে ২১১ রান থেকে ৫ উইকেট হাতে নিয়ে ব্যাটিং শুরু করবে নিউজিল্যান্ড। খেলবে ইনিংসের বাকি ২৩টি বল। টার্গেটে নেমে পুরো ৫০ ওভার পাবে ভারত। ম্যাচ আজকের মতো বাতিল হওয়ায় সুবিধা হল ভারতেরই। আজ খেলা হলে এবং ওভার কাটা পড়লে ডিএসএ পদ্ধতিতে ভারতের সামনে তুলনামূলক কঠিন টার্গেই চলে আসতো। কার্টেল ওভারে ভারতও যদি ৪৬ ওভার খেলতো তাহালে তাদের করতে হতো ২৩৭ রান। আর যদি ভারতের ওভার কমে ২০ এ দাঁড়াতো তাহলে কোহলিদের টার্গেট হতো ১৪৮। তবে নিউজিল্যান্ডের ডাকে সাড়া দেয়নি বৃষ্টি। শেষ বিকেলটা ভাসিয়েই নিয়ে গেছে। হারলেই বাদ! জিতলেই ফাইনাল। ম্যাচের গুরুত্ব বুঝতে এরচেয়ে বেশি কিছুর দরকার পড়ার কথা নয়। কিন্তু, সেমিফাইনালের এই মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে লড়াইয়ের মানসিকতায় খুঁজে পাওয়া দুষ্কর নিউজিল্যান্ড ব্যাটিং থেকে। শুরু থেকেই যে চাপ তৈরি করেছিলেন ভারতীয় বোলাররা, তা থেকে বেরই হতে পারেননি কিউইরা। ম্যাচের তৃতীয় ওভারে স্কোরবোর্ডে রান যখন মাত্র ১, তখন ১৪ বল খেলা ওপেনার মার্টিন গাপটিলকে ফেরান জসপ্রিত বুমরাহ। ৫১ বল খেলা হেনরি নিকোলসের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ২৮ রান। তবে তিনি দীর্ঘক্ষণ সঙ্গ দিয়ে যান অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে। নিকোলসের বিদায়ের পর অভিজ্ঞ রস টেইলরকে নিয়েও রানের চাকায় গতি আনতে পারেননি উইলিয়ামসন। দারুণ ফর্মে থাকা উইলিয়ামসন জুজবেন্দ্র চাহালের শিকার হওয়ার আগে ৯৫ বলে করেন ৬৭ রান। বুমরাহ-ভুবনেশ্বরদের শুরুর দাপটটা ধরে রাখতে সক্ষম হন হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজারাও। শেষ দিকে এসে ব্যাটসম্যানরা দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করলেও বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি জেমস নিশাম, কলিন ডি গ্রান্ডহোমরা। স্কোর: নিউজিল্যান্ড ২১১/৫ (৪৬.১) (বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত) মার্টিন গাপটিল ১ (১৪) হেনরি নিকোলস ২৮ (৫১) কেন উইলিয়ামসন ৬৭ (৯৫) রস টেইলর ৬৭* (৮৫) জেমস নিশাম ১২ (১৮) কলিন ডি গ্রন্ডহোম ১৬ (১০) টম লাথাম ৩* (৪)






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply