sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » বৃষ্টি বাধায় শেষ দিনের খেলা




চট্টগ্রাম টেস্টে ফের হানা দিয়েছে বৃষ্টি। একই কারণে গতকালও দেরিতে শুরু হয়েছিল খেলা। তবে, রোববার দিবাগত রাতে বৃষ্টি হওয়ায় মাঠের যে অবস্থা তাতে প্রথম সেশন পর্যন্ত বল মাঠে গড়াতে পারবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে আশঙ্কা। গতকাল শেষ সেশনে বৃষ্টি বাগ্রায় আধা ঘণ্টা আগেই শেষ হয় চতুর্থ দিনের খেলা। সে ধারাবাহিকতা আজও রয়েছে। রাত গড়িয়ে সকাল থেকে থেমে থেমে চলছে বৃষ্টি। বন্দরনগরীর আকাশ অনেকটা মেঘে ঢাকা পড়েছে। এতে সাগরিকার মাঠ খেলার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কাভার দিয়ে উইকেট ঢেকে রাখা হয়েছে। ড্রেসিংরুমে বন্দি আছেন ক্রিকেটাররা। ফলে পঞ্চম ও শেষ দিনের খেলা শুরু হতে দেরি হচ্ছে। আবহাওয়া অফিস বলছে, সারাদিন মেঘ-বৃষ্টির খেলা চলবে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারসহ সকল উপকূলীয় এলাকায় ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত দিয়েছে। আগের দিনের হিসেব মাথায় রেখে শেষ দিন ৩০ মিনিট আগে খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও, বৃষ্টি বাধায় তা সম্ভব হয়নি। রোববার চতুর্থ দিনে ৬ উইকেটে ১৩৬ রান নিয়ে দিন শেষ করে বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসান ৩৯ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে আছেন। সঙ্গে থাকা সৌম্য সরকার রানের খাতায় খুলতে পারেননি। নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬০ রানেই গুটিয়ে যায় আফগানিস্তান। দলের হয়ে ৮৭ রানের নান্দনিক ইনিংস খেলেন ইব্রাহিম জাদরান। ফলে ৩৯৭ রানের লিড পান সফরকারীরা। এতে একমাত্র টেস্টের নাটাই হাতে নেন তারা। ৩৯৮ রানের পাহাড় টপকাতে নেমে শুরুটা ভাল করলেও, দ্বিতীয় সেশন থেকে শুরু হয় বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান সাঁজঘরে ফেরার প্রতিযোগীতা। দলীয় ৩১ রানে লিটন দাস বিদায় নিলে, একটু পরেই তার পথ ধরেন ওয়ানডাউনে খেলতে নামা মোসাদ্দেক হোসেন। এরপর মুশফিকুর রহিম কিছুটা আশার আলো দেখালেও, শেষমেষ তিনিও রশিদ খানের বলে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়ে সাঁজঘরে ফেরেন। আর কিছু বুঝে ওঠার আগেই রশিদ খানের স্পিন জাদুতে মাঠ ছাড়েন অভিজ্ঞ মুমিনুল হক ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। এক প্রান্তে যখন আসা-যাওয়ার লড়াই, তখন অন্যপ্রান্ত আগ্লে রেখেছিলেন সাদমান ইসলাম। কিন্তু মোহাম্মদ নবীর স্পিন ঘূর্ণিতে ৪১ রান করে প্যাভিলিয়নের পথে হাটেন তিনিও। ফলে একসময় বাংলাদেশের হার সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। সেখান থেকে দলকে টেনে তোলার শেষ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ম্যাচের ব্যাপারে তিনি এখনো আশাবাদি বলে জানান। তবে বাস্তবতা বলছে এ ম্যাচে হারের লজ্জা থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করতে পারে একমাত্র বৃষ্টি। যা সকাল থেকেই বাংলাদেশের হয়ে খেলছে। তবে, মাঠের লড়াইটাই আসল ব্যাপার। যা করে দেখাতে হবে সাকিব-সৌম্যদের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply