sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ভুটানকে আবারও হারাল বাংলাদেশ




ফরোয়ার্ডদের টপকে চমক দেখালেন এক ডিফেন্ডার। দারুণ দুই হেডে জোড়া গোল করে ভুটানের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ফুটবলে বাংলাদেশকে এনে দিলেন টানা দ্বিতীয় জয়। বৃহস্পতিবার ২-০ গোলের জয়ে নায়ক ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান। আগামী ১০ অক্টোবর নিজেদের মাঠে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বে কাতারের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। পাঁচদিন পর ভারতের বিপক্ষে কলকাতায় ম্যাচ। গুরুত্বপূর্ণ দুই ম্যাচের জন্য নিজেদের ঝালিয়ে নেয়ার শেষ সুযোগটা ভুটানের বিপক্ষে ভালোভাবেই কাজে লাগাল বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে ৪-১ গোলে জয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে দাপুটে খেলা নিঃসন্দেহে জেমি ডে শিষ্যদের বাড়তি আত্মবিশ্বাস যোগাবে। আগের ম্যাচে রোববার বৃষ্টি থাকায় কর্দমাক্ত ছিল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের মাঠ। নিজেদের স্বাভাবিক খেলা উপহার না দিতে পারার অভিযোগ ছিল ভুটান কোচের। বৃহস্পতিবারও বৃষ্টি হয়েছে, তবে সেটা সকালে। পরে সারাদিন রোদ থাকায় খেলোয়াড়দের পক্ষেই ছিল মাঠ! অনুকূল পরিবেশে ভুটানি খেলোয়াড়রা শুরু থেকেই ছিল ছন্দেও। শুরুতে খানিকটা এলোমেলো থাকা বাংলাদেশ ছন্দে ফেরে মিনিট দশেক বাদেই। আস্তে আস্তে খেলা গুছিয়ে নিয়ন্ত্রণ নেয় ম্যাচের। তাতে আর ফেরার সুযোগই পায়নি অতিথিরা। খেলা গুছিয়ে আক্রমণে ওঠার ফলটা ২৩ মিনিটে তুলে নেয় বাংলাদেশ। ডি-বক্সের বাইরে থেকে লম্বা থ্রোতে বক্সে বল ফেলেন ডিফেন্ডার রায়হান হাসান। সেই বল মাটিতে আর পড়ার সুযোগ পায়নি। বাতাসে ভাসা অবস্থায় আরেক ডিফেন্ডার ইয়াসিন খানের হেড ভুটানি গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে ঠাই নেয় জালে। প্রথম গোলের সাত মিনিট পরে সুযোগ এসেছিল ব্যবধান বাড়ানোর। ভুটান ডি-বক্সে নাবীব নেওয়াজ জীবনের দারুণ এক হেড বার কাঁপিয়ে গোলবঞ্চিত করে বাংলাদেশকে। বিরতির পর খেলায় আধিপত্য ধরে রাখে স্বাগতিকরা। বদলি ফরোয়ার্ড মাহবুবুর রহমান সুফিল মাঠে নামলে খেলায় বাড়ে গতি। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জাল বরাবর দূরপাল্লার শট নেন অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। তখন গোলরক্ষকের দক্ষতায় গোল হজম করা থেকে কোনোভাবে রক্ষা পেয়েছে ভুটান। দুই মিনিট পর আর রক্ষা হয়নি ভুটানিদের। দারুণ এক দলীয় প্রচেষ্টায় নিজেদের দ্বিতীয় গোল তুলে নেয় স্বাগতিকরা। সতীর্থ আরিফের পা ঘুরে ডি-বক্সের ডানপ্রান্তে বল পান মিডফিল্ডার মোহাম্মদ ইব্রাহিম। তার ক্রস ঠিক খুঁজে পায় ওঁত পেতে থাকা ইয়াসিনকে। ভুটানের দুই ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে তার হেডে বল জালে জড়ালে জয় নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের। শেষদিকে আরও দুটি সহজ সুযোগ হাতছাড়া হয়েছে বাংলাদেশের। আরিফ ও ইব্রাহিম সুযোগ পেয়েছিলেন আরও ব্যবধান বাড়ানোর। সেটি হয়নি। তাই ম্যাচ জয় দিয়ে শেষ হলেও সহজ গোলের একাধিক সুযোগ হাতছাড়ার আক্ষেপ থাকবে জামালদের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply