sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ভারতকে ‘টেক্কা’ দিতে নেপালে রামের মূর্তি স্থাপন করবেন ওলি




 

ভারতকে ‘টেক্কা’ দিতে নেপালে রামের মূর্তি স্থাপন করবেন ওলি ভারতকে ‘টেক্কা’ দিতে নেপালে রামের মূর্তি স্থাপন করবেন ওলি সম্প্রতি ভারতের অযোধ্যায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দেবতা রামের জন্ম নয়। বরং নেপালের চিতওয়ানের মাদি পৌরসভা এলাকার অযোধ্যাপুরীতে বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। এদিকে, মাদি পৌরসভার প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সেখানে রামের মূর্তি নির্মাণের কথা বলেছেন তিনি। এ ছাড়া প্রতিনিধিদের পরামর্শও দিয়েছেন অযোধ্যাপুরীতে যে রামের জন্ম তা প্রচার করতে। নেপালের দ্য হিমালয়া টাইমস জানায়, শনিবার মাদি পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান শিবহরি সুবেদির সঙ্গে ফোনে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। পরে মাদি পৌরসভার মেয়র ঠাকুর প্রসাদ দাকালসহ মাদি থেকে আসা একটি প্রতিনিধির সঙ্গে ২ ঘণ্টা ধরে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। সুবেদি দ্য হিমালয়া টাইমস জানায়, প্রধানমন্ত্রী কেপি অলি বলেছেন ভারতের উত্তর প্রদেশে রামের জন্ম নয় নেপালের অযোধ্যাপুরীতে রামের জন্ম। আমার কাছে যেসব প্রমাণ আছে সেগুলো নির্দেশ করে নেপালের অযোধ্যাপুরীতেই রামের জন্ম হয়েছে। সুবেদি নামের মাদি পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান বলেন, আমরাও বিশ্বাস করি চিতওয়ানের অযোধ্যাপুরী থেকে পারসার থরি এলাকার বাল্মিকি আশ্রমে রামের জন্ম হয়েছে। ন্যাশনাল এসেম্বলির সদস্য দিল কুমার রাওয়াল জানান, প্রধানমন্ত্রী অযোধ্যাপুরীর আশেপাশের এলাকা সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন। প্রতিনিধি দলকে প্রধানমন্ত্রী আরও প্রমাণ সংগ্রহের জন্য খনন কাজ শুরু করতে বলেছেন। অযোধ্যাপুরীকে ঐতিহাসিক ও ধর্মীয় স্থান হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার ভূমি প্রদান করবে বলে জানিয়েছেন নেপালি প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া রাম, লক্ষ্মণ ও সীতার মূর্তি স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে বলা হয়েছে, তারা মাদি পৌরসভার নাম পরিবর্তন করে অযোধ্যাপুরী রাখার চেষ্টা করবেন। এতে করে স্থানটির ধর্মীয় গুরুত্ব বাড়বে। সম্প্রতি উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে অযোধ্যাকে নিজেদের ভূমি বলে দাবি করেছিল নেপালি সরকার।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply