sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » আগুন জ্বলছে ক্যালিফোর্নিয়ায়, পুড়ে গেছে ৪ লাখ একর এলাকা




 

আগুন জ্বলছে ক্যালিফোর্নিয়ায়, পুড়ে গেছে ৪ লাখ একর এলাকা বহু বছরের মধ্যে ভয়াবহ দাবানল দেখছে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্য। ছবি : সংগৃহীত যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্য গত কয়েক বছরের মধ্যে ভয়াবহ দাবানলের কবলে পড়েছে। আগুনের ভয়াবহ তাণ্ডবে ক্যালিফোর্নিয়ার বহু ভবন ও স্থাপনা পুড়ে গেছে এবং হাজার হাজার মানুষ বাড়িঘর ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন।
ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের কর্তৃপক্ষ বলছে, গত বুধবার পর্যন্ত সেখানে ৭২ ঘণ্টায় ১১ হাজার বজ্রপাতের ঘটনা ঘটেছে, যা থেকে ৩৬৩টি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে দুই ডজন বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। রেকর্ড পরিমাণ তাপমাত্রার ফল হিসেবে এই দাবানল সৃষ্টি হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গ্যাভিন নিউসম দাবানলের ঘটনায় অঙ্গরাজ্যে এরই মধ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। তিনি বলেছেন, অ্যারিজোনা, নেভাদা ও টেক্সাস অঙ্গরাজ্য থেকে সাহায্য হিসেবে তিনি আগুন নির্বাপণের জন্য ৩৭৫টি ইঞ্জিন চেয়েছেন। গ্যাভিন নিউসম বলেছেন, ‘আমরা এমন পরিস্থিতি দেখছি, যা বহু বছর ধরে দেখিনি।’ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, ক্যালিফোর্নিয়ার পালো আলতো শহরের বিশ মাইল পূর্বে কয়েকটি দাবানলের ঘটনায় ৮৫ হাজার একর জমি পুড়ছে, যা গত বুধবার রাতের ব্যবধানে দ্বিগুণ আকার ধারণ করেছে। এতে হাজার হাজার মানুষ ঘরবাড়ি ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন। এ ছাড়া উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ায় তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে দাবানল। ওই অঞ্চলে গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দাবানলে চারজন নিহত হয়েছেন। বসতবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হয়েছেন সেখানকার অন্তত ৬২ হাজার বাসিন্দা। দাবানল নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ক্যালিফোর্নিয়ার অগ্নিনির্বাপণ বিভাগ ক্যাল ফায়ার। সংবাদমাধ্যম দ্য নিউইয়র্ক টাইমস এ খবর জানিয়েছে। ক্যাল ফায়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গতকাল পর্যন্ত উত্তর ও মধ্য ক্যালিফোর্নিয়ার চার লাখ একরের বেশি এলাকা পুড়ে গেছে। এসব অঞ্চলে চরম উষ্ণ আবহাওয়া বিরাজমান থাকা অবস্থায় বজ্রপাত থেকে অনেক স্থানে আগুন লেগে যায়। এরপর প্রবল বাতাসের কারণে বিস্তীর্ণ এলাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়ে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply