sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » কোচের চেয়ে রোনালদোর বেতন ২৬০ কোটি বেশি!




 

কোচের চেয়ে রোনালদোর বেতন ২৬০ কোটি বেশি! কোচের চেয়ে রোনালদোর বেতন ২৬০ কোটি বেশি! গ্রহের অন্যতম সেরা ফুটবলারটাকে দলে ভেড়াতে প্রচুর অর্থ ব্যয় করতে হবে সেটিই স্বাভাবিক। তাই বলে ব্যবধানটা এত বেশি হবে! ইংলিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল বলছে, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে নতুন কোচ আন্দ্রে পিরলোর বেতনের ফারাকটা আকাশ ছোঁয়া। তাছাড়া ক্লাবের অন্য ফুটবলাররাও পর্তুগিজ তারকার ধারে কাছের বেতনও পান না। চলতি সপ্তাহেই কোচ মৌরিজিও সারিকে বরখাস্ত করে ক্লাবের সাবেক তারকা আন্দ্রে পিরলোকে নিয়োগ দিয়েছে য়্যুভেন্তাস। সম্প্রতি ফাঁস হয়েছে ক্লাবটির ফুটবলার এবং কোচের বেতন। আর তাতে দেখা গেছে, ক্লাবের মাত্র তিন ফুটবলার পিরলোর চেয়ে কম বেতন পান! ইউরোপিয়ান ফুটবলে সাধারণত কোচদের ভূমিকাটা বড়। গার্দিওলা-মরিনহোদের বেতনটাও আকাশছোঁয়া। আর এরমধ্যেই পুরো ফুটবল বিশ্বকে চমকে দিয়েছে ইউরোপের অন্যতম বড় ক্লাব য়্যুভেন্তাস। নামমাত্র বেতনে তারা দলে ভিড়িয়েছে পিরলোকে। ইতালিয়ান গণমাধ্যম গেজেত্তা দেলো স্পোর্টের বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল বলছে, বছরে মাত্র ১.৬ মিলিয়ন ইউরো বেতন পাচ্ছেন পিরলো। অংকটা একেবারে কমও নয়। বাংলাদেশি টাকায় হিসাব করলে এর মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ১৭ কোটি টাকা। তবে দলের তারকা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর কাছে যে এই অংক কিছুই না! প্রতি মাসেই এর চেয়ে অনেক বেশি টাকা বেতন নেন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার। বার্ষিক তার বেতন ২৮ মিলিয়ন ইউরো। বাংলাদেশি টাকায় যেটি প্রায় ২৮০ কোটি টাকা। সে হিসেবে নতুন নিয়োগ পাওয়া কোচের সঙ্গে তার বেতনের পার্থক্যটা ২৬০ কোটিরও বেশি! সে হিসাবে রোনালদোর এক বছরের বেতন পেতে পিরলোর লাগবে প্রায় ১৮ বছর! কেবল কোচের সঙ্গেই নয়, দলের অন্য ফুটবলারদের চেয়েও ঢের বেশি বেতন পান রোনালদো। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেতন পান গেল মৌসুমে আয়াক্স থেকে য়্যুভেন্তাসে যোগ দেয়া ম্যাথিস ডি লিট। তার বার্ষিক বেতন ৭.২ মিলিয়ন ইউরো। অর্থ্যাৎ, রোনালদোর সঙ্গেও তার বেতনের ফারাক ২০০ কোটি টাকার বেশি। ডি লিট ছাড়াও, ক্লাবের তারকা ফুটবলার হিগুয়েন, ইয়ানিক, দিবালা কিংবা রামসি সবাই মিলেও পান না রোনালদোর বেতনের সমান! এরা ছাড়াও দিয়েগো কস্তা, কোয়াদ্রাদো, কিয়েলিনি কিংবা সামি খেদিরার মতো তারকা ফুটবলার খেলেন য়্যুভেন্তাসে। বলার অপেক্ষা রাখে না, এরা কেউই রোনালদোর ধারে কাছের বেতনও পান না। যাই হোক, নিজের সাবেক ক্লাবের প্রতি ভালোবাসা থেকেই হয়তো দায়িত্ব নিয়েছেন পিরলো। এই পদেও সফল হলে আগামী মৌসুমে ইউরোপিয়ান ফুটবলের দলবদলের বাজারে যে বেশ নামডাক কামাবেন, সে বিষয়ে তো কোনো সন্দেহ নেই। আচ্ছা, বর্তমান দলে পিরলোর চেয়ে কম বেতন পান মাত্র তিনজন ফুটবলার। এরমধ্যে একটি নাম দেখলে চমকে উঠবেন। ইতালির বিশ্বকাপজয়ী গোলকিপার এবং দেশটির অন্যতম কিংবদন্তী ফুটবলার জিয়ানলুইজি বুফনের বেতন মাত্র ১.৩ মিলিয়ন ইউরো। রোনালদোর সঙ্গে অন্য সবার বেতনের ফারাকটা যেমন অবাক করার মতো, তেমনি এই তথ্যটাও খুবই অবাক করার কথা সবাইকে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply