sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » অভিযোগ প্রমাণ হলে প্রদীপের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা: আইনমন্ত্রী




 

অভিযোগ প্রমাণ হলে প্রদীপের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা: আইনমন্ত্রী টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাসের বিরুদ্ধে ওঠা সব অনিয়ম ও বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ প্রমাণ হলে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি জানান, প্রদীপ কুমার দাসের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ আলাদা তদন্ত করবে সরকার। আর জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ডক্টর মিজানুর রহমান মনে করেন, বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ডের দায়, সরকার এড়াতে পারে না। কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান নিহত হবার পর থেকেই আলোচনায় টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ। তার বিরুদ্ধে একে একে উঠে আসছে অভিয়মের অসংখ্য অভিযোগ। ২৫ বছরের চাকরিজীবনের বেশিরভাগ সময় চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিভিন্ন থানার দায়িত্বের ছিলেন প্রদীপ কুমার। টেকনাফ থানায় তার দুই বছরের মেয়াদে দেড় শতাধিক বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা। প্রতিদিনই দুর্নীতি ও অনিয়মের নতুন নতুন অভিযোগ উঠছে তার বিরুদ্ধে। যার সব কিছুই আমলে নিচ্ছে সরকার। আইন ও শালিস কেন্দ্রের জরিপ বলছে, গত ৬ মাসেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে মৃত্যু প্রায় দুইশো জনের। অপরাধ দমনে বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ড কোনো সমাধান নয় বলে মনে করেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের দায়িত্বে থাকাকালে বিচারবর্হিভূত হত্যাকাণ্ড বন্ধে সোচ্চার ভূমিকার রাখার চেষ্টা করেও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সহযোগিতা না পাওয়ার কথা জানান ড. মিজানুর রহমান। ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজারের টেকনাফের সামলাপুরে পুলিশের গুলিতে মারা যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ। হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ লিয়াকতসহ ৭ জন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply