sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » লিটনের ‘আগের ছন্দে’ ফেরার চ্যালেঞ্জ




সবশেষ সিরিজে ছিলেন দারুণ ছন্দে। মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাটিতে একচ্ছত্র দাপট দেখান লিটন দাস। সেই ফর্ম আবারও ফিরে পেতে চান বাংলাদেশ ওপেনার। করোনা বিরতি কাটিয়ে মাঠের ক্রিকেট শুরু হলে লিটনের চেষ্টা থাকবে শেষের জায়গা থেকেই শুরু করা। ‘একটা বিরতির কারণে হয়তবা ব্যাকফুটে আছি। শুধু আমি না, বোলার বলেন বা ব্যাটসম্যান, যারা একাদশে থাকবে সবাই ব্যাকফুটে থাকবে। কারণ অনেকদিনের একটা বিরতি। আগের যে সিরিজটা খেলেছি সেখানে একটা আত্মবিশ্বাস আছে অবশ্য, অতি-আত্মবিশ্বাস নেই আমার।’ ‘কারণ প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। আউট হওয়ার জন্য একটা বলই যথেষ্ট, যেটা বিশ্বাস করি। এজন্য প্রতিটি বলই ফোকাস দিয়ে খেলতে হয়। চেষ্টা করছি এখানে অনুশীলনে যেন মনোযোগটা নিয়ে আসতে পারি। আগের সিরিজটা যে মনোযোগ দিয়ে শেষ করেছি, সেই মনোযোগটা যেন মাঠে আবার ফিরিয়ে আনতে পারি। মনোযোগ ও নিজের চ্যালেঞ্জটা যদি আবার নিতে পারি যে ভালো কিছু করতে হবে, মনে হয় সম্ভব ভালো কিছু করা।’ গত মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে দুটিতেই সেঞ্চুরি করেছিলেন লিটন। যার একটি ১৭৬ রানের ইনিংস। ওয়ানডেতে যা টাইগারদের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ সংগ্রহ। পরে দুই ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজের দুটিতেই পেয়েছিলেন ফিফটির দেখা। সামনে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজের চ্যালেঞ্জ। অক্টোবর-নভেম্বরে শ্রীলঙ্কায় গিয়ে টাইগাররা খেলবে তিন টেস্টের সিরিজ। বিরতি কাটিয়ে লিটনও ফিরেছেন মাঠে। অনুশীলনে ফিরে সোমবার প্রথম শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের সেন্টার উইকেটে ব্যাটিং করার সুযোগ পেয়েছেন টাইগাররা। পরে লিটন বললেন, ‘মিরপুরে ফিরতে পারা নিজের অনেক ভালো লাগার। অনেকদিন পর ক্রিকেট ব্যাট ধরতে পারছি, ব্যাটিং করতে পারছি। এটা হল সবচেয়ে বড় জিনিস, উইকেটের মধ্যে ব্যাটিং করা। এ জিনিসটা অনেক স্বস্তি দিচ্ছে যে সামনে হয়ত ক্রিকেট আছে, এবং আসলেই ক্রিকেট আছে সামনে।’ ‘চেষ্টা করবো সামনে যে সিরিজটা আছে, এখান থেকে প্রস্তুতি নিয়ে যেন ভালো কিছু করা যায়। সবমিলিয়ে এতদিন পর মাঠে এসে সবার সাথে দেখা হওয়াও ভালো লাগছে। যাদের সাথে সবসময় খেলি তাদের কাছে পাচ্ছি, কথাবার্তা শেয়ার করতে পারছি। এটায় নিজের কাছে অনেক ভালো লাগছে।’






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply