sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » চূড়ান্ত দল নিয়ে যা বললেন কোচ-পরিচালকরা




চূড়ান্ত দল নিয়ে যা বললেন কোচ-পরিচালকরা

একইসঙ্গে সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে দলে পাওয়ায় আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে জেমকন খুলনা। শিরোপা জয়ে প্রত্যয়ী হাইপ্রোফাইল দলটি। বেক্সিমকো ঢাকা আস্থা রেখেছে মুশফিকুর রহিমের ওপর। তামিমের নেতৃত্বে ফাইনালে খেলার আশা ফরচুন বরিশালের। তারুণ্য নির্ভর মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর তুরুপের তাস সাইফউদ্দিন। আর টি-টোয়েন্টি স্পেশালিষ্টদের নিয়ে ফাইনালের মঞ্চে পা রাখতে চায় গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। এ যেন সোনায় সোহাগা! সাকিবের প্রতি খুলনা টাইটান্সের আগ্রহ বহুদিনের। বিপিএলের প্রথম আসরে ২০১২ সালে খুলনা রয়্যাল বেঙ্গলসের হয়ে খেলেছিলেন সাকিব। এরপর আর তাকে পায়নি খুলনার ফ্র্যাঞ্চাইজি। কিন্তু, এবার শুধু তিনিই নন, ড্রাফট ভাগ্যে টাইটান্সের নিয়মিত অধিনায়ক রিয়াদও জেমকন গ্রুপের দলে। জেমকন খুলনার পরিচালক কাজী এনাম আহমেদ বলেন, 'বিপিএল বা ঘরোয়া কোনো টুর্নামেন্টে সাকিব আর রিয়াদকে এক দলে পাওয়া যায় না। আমরা আশা করিনি, রিয়াদকে অন্য কেউ ডাকবে না। সাকিব খুলনা বিভাগের ছেলে। বহুদিন পর আবার খুলনায় খেলবে। আর বিপিএলে আমরা খুলনা টাইটান্সেরও স্পন্সর। যে দলে রিয়াদ আমাদের সঙ্গে সবসময় ছিলো। দু'জনই ঘরের ছেলে। আমরা আনন্দিত। আমরা যেহেতু খুলনার টিম, সবসময়ই চেয়েছিলাম যাতে খুলনার কিছু ছেলে আমাদের টিমে থাকে। এবার সাকিব, ইমরুল, বিজয়, আল-আমিনকে পেয়েছি। ভালো লাগছে। অভিজ্ঞ দল হয়েছে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই নামবো।' ড্রাফট ভাগ্যে বেশ কিছু পছন্দের ক্রিকেটারকে না পাওয়ার আফসোস আছে বেক্সিমকো ঢাকার। তবে, মুশফিকুর রহিমের নিবেদনে আস্থা রাখছে তারা। আর ফরচুন বরিশালের গুরুদায়িত্ব তামিমের কাঁধে। বেক্সিমকো ঢাকার হেড কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, 'মুশফিক ফর্মে আছে। তার নিবেদন অন্যরকম। সব ম্যাচ জিততে চায়। আমাদের পরিকল্পনাই ছিলো তাকে নিয়ে। দলটা তারুণ্য নির্ভর। অভিজ্ঞদের মধ্যে মুশফিক-রুবেল আছে। যেহেতু প্রথম কল আমাদের ছিলো, দ্বিতীয় কল ছিলো ১০ নম্বরে। তাই মাঝখানে বেশ কিছু অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে মিস করেছি। তবে, তরুণদের জন্য এটা সুযোগ। বিপিএলে হয়তোবা বিদেশি ক্রিকেটারদের জন্য অনেকে সুযোগ পায়না। ডেথ ওভার বোলার সহ অনেক কিছুই পাচ্ছিনা। তাই বিসিবির জন্যও এটা ভালো। হয়তো অনেকে টপ অর্ডারে ব্যাটিং করবে, ফিনিশ করবে। ডেথ ওভারের বোলিং আয়ত্ত করবে।' ফরচুন বরিশালের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জানান, 'আমরা তামিমকে অধিনায়ক হিসেবেই নিয়েছি। অভিজ্ঞতা আর তারুণ্যের সমন্বয়ে দল গড়ার চেষ্টা করেছি। বরিশালের কিছু ক্রিকেটারকেও নিয়েছি। আমাদের লক্ষ্য, ফাইনালে খেলা।' কোচ সালাউদ্দিন কৌশলী। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সৌম্য, লিটন, মোস্তাফিজরাই গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম কোচের পছন্দ। তারুণ্য নির্ভর দল সাজিয়েছে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীও। সাইফউদ্দিন-শান্তদের নিয়ে পরিকল্পনা সাজাচ্ছে তারা। গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের হেড কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, 'খেলা যেহেতু টি-টোয়েন্টি, তাই এই ফরম্যাটে যারা ভালো খেলে তাদের দিকেই আমাদের নজর ছিলো। ড্রাফটে সবসময় পছন্দের খেলোয়াড় পাবেন না। যেহেতু ভাগ্যের ব্যাপার আছে। তারপরও আমরা অভিজ্ঞদের পেয়েছি। পাশাপাশি টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্টও আছে, যারা ম্যাচ উইনার হিসেবে কাজ করবে। পাঁচটা দলই ভালো হয়েছে। সবাই একই রকম। আশা করছি ভালো একটা টুর্নামেন্ট হবে।' মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী চেয়ারম্যান এমএ রাজ্জাক খান জানান, 'আমরা তারুণ্য নির্ভর দল গড়ার চেষ্টা করেছি। সাইফউদ্দিন অলরাউন্ডার। খুবই ভালো খেলছে। এছাড়া মেহেদী, শান্ত, সোহান, আশরাফুল আছে। ইমরান ভাই সিনিয়র কোচ। হান্নান সরকার টিম ম্যানেজার। শক্তিশালী দল হয়েছে বলেই মনে করি। ফাইনাল খেলার লক্ষ্য আমাদের।' দল যেমনই হোক, ইয়াং স্টারদের জন্য বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ প্রমাণের এক বড় মঞ্চ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply