sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » চেলসির প্রত্যাশিত জয়




প্রত্যাশিত জয় পেয়েছে চেলসি। অ্যাওয়ে ম্যাচে নিউক্যাসেল ইউনাইটেডকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড বাহিনী। এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এল লন্ডনের ক্লাবটি। সেইন্ট জেমস পার্কে গত মৌসুমের লড়াইটা ল্যাম্পার্ডের মানসপটে ভাসছিল কি না জানা নেই, তবে ফুটবলাররা যে স্নায়ু চাপে ভুগছিলেন তা অবধারিত। তবে, ভয়-ডরহীন ফুটবল খেলার লক্ষ্য নিয়েই এ যাত্রায় অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলতে গেছিল চেলসি। যার প্রমাণ, একাদশ আর আক্রমণাত্মক ফর্মেশনে আগেই জানান দেন ল্যাম্পার্ড। ম্যাচ শুরু হতেই দেখা যায় ব্লুদের আগ্রাসী রূপ। ওয়ের্নার, আব্রাহামের সঙ্গে মৌন্ট-কান্তেদের আটকাতে হিমশিম খেতে থাকে ফার্নান্দেজ-ক্লার্করা। তবে গোল করার মতো সুযোগ তৈরি হচ্ছিল না কোনোভাবেই। যে কয়টা বল ডিফেন্স ভেদ করেছিল, সেগুলো আটকে যায় ডারলোর গ্লাভসে। তবে ১০ মিনিটে আর থামানো যায়নি চেলসিকে। লাইন থেকে ক্রস করা বলে নিজে পা না ঠেকাতে পারলেও, গোল ঠিকই আদায় করে নেন চিউইল। তার হালকা ধাক্কায় বলের ওপর পড়ে যান ফার্নান্দেজ। আর সে সময়ই বলে জড়িয়ে যায় নিউক্যাসেলের জালে। আত্মঘাতী গোল হজম করতে হয় স্বাগতিকদের। এরপর অনেক চেষ্টা করলেও, প্রথমার্ধে আর কোনও সুযোগ পায়নি কেউ। এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় অতিথিরা। ফিরে এসে আক্রমণের ধার বাড়ায় নিউক্যাসেল ইউনাইটেড। কৌশল বদলাতে বাধ্য হন ল্যাম্পার্ড। তবে গোল যেন সোনার হরিণ হয়ে যায় দু’দলের কাছে। অ্যাটাকিং থার্ডে বারবারই ব্যর্থ হন ফরোয়ার্ডরা। কিন্তু ৬৫ মিনিটে ঠিকই বাজিমাত করে চেলসি। ওয়ের্নার থেকে বল পেয়ে দুরন্ত এক কাউন্টার অ্যাটাকে স্বাগতিক গোলরক্ষককে বোকা বানান টমি আব্রাহাম। ২-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে যায় ব্লুরা। পরে, অবশ্য আরো কয়েকটি সুযোগ এসেছিল চেলসির সামনে। কিন্তু গোল করার মতো জায়গায় ছিলেন না কেউ। হাডসন ওডোই কিংবা অলিভার জিরুরা ঠিক জাতীয় দলের ফর্মটা টেনে আনতে পারেননি ক্লাব জার্সিতে। ফলাফল, ২-০তেই থামতে হয় লন্ডনের ক্লাবটিকে। এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের অবস্থানটা বেশ শক্ত করে নিল চেলসি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply