sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » কঠিন সময়েও এগিয়ে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ বার্সেলোনা




 

কঠিন সময়েও এগিয়ে যেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ বার্সেলোনা উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ডায়নামো কিয়েভের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। এ ম্যাচে জিতলে নক আউট পর্বের পথে এগিয়ে যাবে কাতালানরা। করোনার আর্থিক ক্ষতি হওয়ায় দেউলিয়া হওয়ার শঙ্কায় বার্সা। কঠিন সময়ে হাল ধরবেন ফুটবলাররা। এমনটাই আশা কোচ রোনাল্ড কোম্যানের। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ আজ রাত ২টায়। বার্সেলোনার ক্লাব ইতিহাসে এতটা খারাপ সময় খুব কমই এসেছে। করোনায় বড় ধরণের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে কাতালানদের। গেল ক'মাস ধরেই ফুটবলারদের বেতন কমাতে প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো বার্সা। কিন্তু রাজি হয়নি মেসিরা। দ্রুতই মেসিরা বেতন কমাতে না চাইলে কাতালান গণমাধ্যমের দাবি জানুয়ারিতেই দেউলিয়া হয়ে যেতে পারে বার্সেলোনা। ক্লাবের সব খেলোয়াড়ের বেতন নুন্যতম ৩০ শতাংশ কমাতে হবে। বাঁচাতে হবে কোষাগারের ১৯০ মিলিয়ন ইউরো। এমন কঠিন সময়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ডায়নামো কিয়েভের মুখোমুখি হচ্ছে বার্সেলোনা। 'জি' গ্রুপে দুই জয়ে সবার ওপরে আছে কাতালানরা। এ ম্যাচে ইউক্রেনের ক্লাব ডায়নামো কিয়েভকে হারাতে পারলেই নক আউটের পর্বের পথে অনেকটাই এগিয়ে যাবে কোম্যানের দল। ইনজুরির কারণে খেলতে পারবেন না রোনাল্ড আরাউজো, কৌতিনিয়ো ও ম্যাথিউস ফারনান্দেস। অনিশ্চিত স্টেগান ও উমতিতি। প্রতিপক্ষ ডায়নামো কিয়েভও করোনায় জর্জরিত। নিয়মিত একাদশে খেলা ৯ ফুটবলারই করোনায় আক্রান্ত। তাই তাদের রেখেই বিকল্প ভাবতে হবে কোচকে। প্রতিপক্ষের দুর্বলতাকে পুঁজি করে নয়, বরং ভাল খেলেই ম্যাচ জিততে চায় বার্সেলোনা। ক'দিন আগেই গণমাধ্যমে দলের সেরা তারকা মেসিকে সামলানো কঠিন বলে মন্তব্য করেছিলেন সাবেক কোচ কিকে সেতিয়েন। কিন্তু নিজের অভিজ্ঞতা মেসির ক্ষেত্রে একেবারেই আলাদা বলে জানান কোম্যান। বার্সা কোচ কোম্যান বলেন, 'আমরা একটা কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি ফুটবলাররা বেতন কমানো বা অন্য বিষয়গুলো না ভেবে ম্যাচ জয়ের দিকে মনোযোগ দেবে। মেসি আমার দেখা সেরা ফুটবলার। তাকে সামলানোর কিছু নেই। সে নিজেই ভাল খেলে এবং অন্যদেরও উৎসাহ যোগায়। কিয়েভের বিপক্ষে ম্যাচ জিতেই ফিরতে চাই আমরা।' এর আগে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় দশবার দেখা হয়েছে বার্সেলোনা ও কিয়েভের। ৬ জয় নিয়ে এগিয়ে আছে বার্সেলোনা। তিন জয় কিয়েভের।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply