sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» »Unlabelled » টানা ১৪ মাস আমার নামাজ কাযা হয়নি: জবি অধ্যাপক রিতু




টানা ১৪ মাস আমার নামাজ কাযা হয়নি: জবি অধ্যাপক রিতু ধর্মতত্ত্ব নিয়ে ২৯ বছর পড়াশোনা করে ইসলাম গ্রহণ করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রিতু কুন্ডু। ২০১৭ সালের ১৬ মার্চ শান্তির এ ধর্মে তিনি দিক্ষিত হয়েছিলেন। তবে বিষয়টি সেভাবে জানাজানি হয়নি। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও আপলোড করে নিজের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের দীর্ঘ যাত্রার কথা বর্ণনা করেন এ শিক্ষিকা। সহকারী অধ্যাপক রিতু জানিয়েছেন, ইসলাম গ্রহণের পর টানা ১৪ মাস তিনি নামাজ কাযা করেননি। এছাড়া সেদিন থেকে হিজাব পরা শুরু করেন তিনি। তবে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর নাম পরিবর্তনের বিষয়ে কিছুই জানাননি তিনি। জানা গেছে, রিতু কুন্ডু তার নাম পরিবর্তন করে আদ্রিতা জাহান রিতু রেখেছেন। ভিডিওবার্তায় এ অধ্যাপক বলেন, ‘দীর্ঘ ২৯ বছরের বিভিন্ন ধর্ম নিয়ে পড়াশোনা ও জ্ঞান-বুদ্ধির আলোকে আমি ইসলামের বিষয়ে এক মাসব্যাপী পড়াশোনা শুরু করি। ১৬ দিনের মধ্যেই আমি সত্য উপলব্ধি করি এবং ২০১৭ সালের মার্চে ইসলাম গ্রহণ করি। এই দীর্ঘ ২৯ বছর পর্যন্ত আমি নিজের পরিবার, সমাজ ও মানুষের আচার-ব্যবহার পর্যবেক্ষণ করি। এ দীর্ঘ সময় অন্যান্য প্রধান সব ধর্মের গ্রন্থাবলি পাঠ করেছি। জাপানেও এ বিষয়ে পড়াশোনা করি। ২০১২ সালে এসে বুঝতে পারি, এগুলো মানুষ রচিত বই (ঐশি বাণী নয়)।’ তিনি আরও বলেন, ‘দীর্ঘ ২৯ বছর পর আমি পবিত্র কোরআনের বাংলা অনুবাদ পাঠ করি। এর পাশাপাশি আমি হাদিসও পাঠ করি। সামনে কোরআনের যে সূরা আর হাদিস পেয়েছি তাই মনযোগ দিয়ে পড়েছি। মহান আল্লাহর নির্দেশনার কারণ ও বিধি-নিষেধ নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করি। কখনো এ বিষয়ে স্বপ্নও দেখেছি। তা হয়ত অনেকের অবিশ্বাস মনে হবে। ‘খুব ছোট থেকেই হয়ত আল্লাহ আমাকে ইসলাম কবুলের জন্য তৈরি করেছিলেন। ছোট থেকে আজ পর্যন্ত জীবনের প্রতিটি ঘটনা, শিক্ষা, প্রতিবন্ধকতা আর সমাজের অসংগতি আমাকে ধীরে ধীরে ইসলামের পথে পরিচালিত করেছে। আমি যখন বুঝতে পারলাম, আমাকে নামাজ পড়তে হবে সেদিন থেকে টানা ১৪ মাস আমার নামাজ কাযা হয়নি। এটা আমি অংকারের জন্য বলছি না। এরপরও অফিস বা পারিপার্শ্বিক কারণে কাযা হয়েছে। তবে আল্লাহর রহমতে এখনও কোনো নামাজ (ফরজ) ছুটে যায়নি। এরপর আমি যখন অনুভব করলাম, আমাকে পর্দা করতে হবে সেদিন থেকে আমি হিজাব পরা শুরু করি।’ পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবের বিরোধিতা সত্ত্বেও তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণের সিদ্ধান্তে অবিচল ছিলেন বলে জানান এ শিক্ষিকা। রিতু বলেন, ‘আমার পরিবার ও বন্ধুরা আমাকে এমনটি করতে মানা করে। কিন্তু আমি তাদেরকে বলি, আমি রাসুল (সা.)-কে ভালোবাসতে পেরেছি। আমি বুঝতে পেরেছি, তিনি কেন আমাদের এত সুন্দর সুন্দর উপদেশ ও নির্দেশনা দিয়েছেন। আজ থেকে আল্লাহর কাছে আত্মসমর্পন করলাম।’ রিতু নীলফামারী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও নীলফামারী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। ২০১৩ সালে তিনি রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১৭ সাল থেকে তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে অধ্যাপনা করছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply