sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » নেশাগ্রস্ত অভিনেতা শামীম, স্ত্রীর সঙ্গেও করেন দুর্ব্যবহার: শাশুড়ি




ছবি: অভিনেতা শামীম আহমেদ। সংগৃহীত গাজীপুরের উলুখোলা থেকে শুটিং করে ১৬ মার্চ সকালে সিলেট গিয়েছিলেন অভিনেতা শামীম আহমেদ। শুটিং শেষে সেখান থেকে ঢাকায় ফেরার জন্য বাসে ওঠেন ২০ মার্চ রাতে। সেসময় অপরিচিত নাম্বার থেকে ফোন করে স্ত্রীকে জানান, তার ফোন চুরি হয়ে গেছে। ঢাকা আসার জন্য বাসে উঠেছেন। তারপর শামীমের কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না তার স্ত্রী আশা মনি। গণমাধ্যমে শামীমের নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ প্রকাশের পর আবারও সোমবার (২২ মার্চ) রাতে স্ত্রীকে ফোন করেন শামীম। জানান, উলুখোলায় শুটিং করছেন তিনি। নিজের মোবাইল না থাকায় কারও সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি। তবে তিনি ভালো আছেন, সুস্থ আছেন। সবশেষ শামীমের সাথে তার স্ত্রীর কথা হয়েছে ২৩ মার্চ সকালে। সময় সংবাদকে এমনটাই জানিয়েছেন আশা মনি। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উলুখোলায় বাদশা মিয়ার হাউস বিলাস বাড়িতে শুটিং করছেন শামীম। শুটিং থেকে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) বাসায় যাওয়ার কথা ছিল তার। ২৫ মার্চ থেকে পূবাইলের ৩০০ ফিটে একটি নাটকে অভিনয় করার কথা রয়েছে শামীমের। এদিকে, শামীম বাসায় ফিরেছে কিনা জানতে তার স্ত্রীর নাম্বারে ফোন করলে তা রিসিভ করেন শামীমের শাশুড়ি নাজমা বেগম। তিনি বলেন, ‘শামীম এখনও বাসায় আসে নাই। ও উলুখোলায় কাজ করছে। কালকে যা একটু কথা হইছে, ও আর ফোন দেয় নাই, বাসায়ও আসে নাই।’ শামীমের সঙ্গে আশা মনির কোনো সমস্যা আছে? এমন প্রশ্নের উত্তরে নাজমা বলেন, ‘না না কোনো ঝামেলা নাই।’ তাহলে শামীম রহস্যজনক আচরণ কেন করছে? পাল্টা প্রশ্নের উত্তরে তার শাশুড়ি বলেন, ‘কালকে শুধু বলছে, আমি উলুখোলায় কাজ করতেছি। আর কোনো কথা আমার মেয়ে বা আমাদের সাথে বলে নাই। এখন ওর কি সমস্যা, সেটা যদি আপনারা ওকে জিজ্ঞেস করতেন। আপনাদের কাছে আমার আবদার, আপনাদেরও তো মা-বোন আছে বাবা আপনারা ওইভাবে দেখেন। মনে করেন আপনার একটা বোন, ওর কি সমস্যা সেটা ওর (শামীম) থেকেই জানতে পারবেন। এমনিতে বাসা থেকে গেছে ভালো, কার ভেতর কি আছে সেটা তো আমরা জানি না বাবা।’ যোগ করে শামীমের শাশুড়ি আরও বলেন, ‘ও মাঝে মাঝেই এরকম করে। দশদিন, সাতদিনে আসে কিন্তু নিখোঁজ হয়ে যায় নাই। কিন্তু এবার আমার মেয়ের কাছে থেকে নিখোঁজ হয়ে যাইতে চায়। যাইতে হলে একটা কথা বলে যাইতে হবে, তাই না?’ আশা মনির কাছ থেকে শামীম দূরে সরে যেতে চাইছে, আপনাদের কাছে কি এমন মনে হয়েছে? জানতে চাইলে আশার মা নাজমা বেগম বলেন, ‘আমাদের কাছে হয় না, আবার হয়ও বাবা। আমরা তো কিছু বলতে পারতেছি না, সন্দেহ করতেছি। উত্তরাতেই ওর সব কিছু, ওইখানেই ওর আড্ডা। আমার ৮ বছরের একটা নাতি আছে, আরও দুইটা নাতি আছে, ওদের খোঁজ খবর তেমন নেয় না। মনে চাইলে নেয়, না মনে চাইলে না। ও নিজেই কাজ করে নিজেই খায়।’ আলাপকালে নাজমা বেগম জানান, শামীম তার স্ত্রীর খরচপাতি ঠিকমতো দেয় না। শামীম বিভিন্ন রকমের ঝামেলা করে উল্লেখ করে নাজমা আরও বলেন, ‘শামীম নেশা করে, আমার মেয়ের সাথে খারাপ ব্যবহার করে।’ শামীমের শাশুড়ির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি তাকে। অভিনেতার ফেসবুকে বার্তা পাঠালেও এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোনো প্রত্যুত্তর পাওয়া যায়নি। ১৯৯৯ সালে ‘বন্ধন’ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে ক্যারিয়ার শুরু করেন শামীম আহমেদ। লম্বা ক্যারিয়ারে এক হাজারেরও বেশি নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। বড়পর্দাতেও দেখা গেছে শামীমকে। প্রায় ২৬টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply