sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » করোনায় মুখ থুবড়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক পর্যটন




করোনায় মুখ থুবড়ে পড়েছে আন্তর্জাতিক পর্যটন

২০২০ সাল মহামারির বছর। মহামারি ভয়াবহ আকার ধারণের পর থেকেই সারাবিশ্বে টানা কয়েক মাস আন্তর্জাতিক পর্যটন বন্ধ ছিল। কিছু দেশ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে শুরু করলেও এখনো বিশ্বের ৩২ শতাংশ দেশে পুরোপুরি বন্ধ আন্তর্জাতিক পর্যটন। অভ্যন্তরীণ পর্যটন ব্যবস্থা চালু আছে প্রায় সব দেশেই। মহামারিতে সারাবিশ্বের অন্তত ৬৯টি দেশ এখনো আন্তর্জাতিক পর্যটন ব্যবস্থার সাথে সংযুক্ত হয়নি। এমনটাই জানিয়েছে জাতিংসঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থা ইউএনডব্লিউটিও। জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থার রিপোর্ট বলছে, নতুন ধরনের কোভিড নাইনটিন সংক্রমণের কারণে বিভিন্ন দেশের সরকার আবারও নড়েচড়ে বসেছে। নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে পর্যটন খাতে। মূলত এশিয়া, প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল আর ইউরোপেই পর্যটন ব্যবস্থা বেশি বিপর্যস্ত। জাতিসংঘ বলছে, পর্যটন খাতের ওপর বিশ্বের লাখ লাখ মানুষের ব্যবসা ও কর্মসংস্থান জড়িত। তাই সতর্ক থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটন খাতে বিধিনিষেধ শিথিল করা উচিত বলে মনে করে সংস্থাটি। সংস্থাটি বলছে, ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার কারণে ৬৯ টি দেশে সীমান্তই বন্ধ। এরমধ্যে এশিয়া আর প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশ ৩০টি, ইউরোপের দেশ ১৫টি, আফ্রিকার দেশ ১১টি, আমেরিকার দেশ ১০টি আর ৩টি মধ্যপ্রাচ্যের দেশ। ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট এসোসিয়েশন বলছে, চলতি বছরও আন্তর্জাতিক পর্যটন ব্যবস্থা স্বাভাবিক হবে না। মানুষ ভ্রমণের জন্য আকুল হয়ে থাকলেও পর্যটন ব্যবস্থা স্বাভাবিক হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। আইএটিএ বলছে, চলতি বছরের মে বা জুন মাস থেকে প্রাণ ফিরে পেতে পারে পর্যটন খাত। এ নিয়ে বিভিন্ন দেশের সাথে আলোচনা চলছে। পর্যটন খাতের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যবসা আগের অবস্থায় যেতে সময় লাগবে ১২ থেকে ১৮ মাস। বিশ্বের ৩৩টি রাষ্ট্র আর অঞ্চলের সাথে সীমান্ত খুলে দেওয়া আর আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর বিষয়ে আলোচনা করছে আইএটিএ। তবে সাবধান থাকতে হবে স্বাস্থ্য নিরাপত্তার বিষয়ে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply