sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মুশফিকের অনুশীলনে ফেরার আনন্দ




মুশফিকুর রহিম। ছবি : সংগৃহীত নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে পা রেখে টানা সাত দিন রুমবন্দি অবস্থায় ছিলেন ক্রিকেটারেরা। এমনকি সতীর্থদের সঙ্গে দেখা করতেও ছিল মানা। অবশেষে তিন ধাপে করোনা পরীক্ষার পর আজ বৃহস্পতিবার থেকে গ্রুপ ভিত্তিক অনুশীলন শুরু করেছেন ক্রিকেটারেরা। আট দিন পর মাঠে ফিরতে পারার আনন্দ ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করলেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। প্রথম সাতদিন কোয়ারেন্টিনে থাকার পর গতকাল বুধবার থেকে জিমে যাওয়ার অনুমতি মিলেছে ক্রিকেটারদের। আজ সুযোগ মিলেছে অনুশীলনেরও। এতদিন পর অনুশীলনে ফেরার আনন্দ ফুটে উঠেছে মুশফিকের চোখে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি হাস্যোজ্জ্বল ছবি পোস্ট করেছেন মুশফিক। ছবিতে মুশফিকের মুখে হাসি, ক্যাপশনে লেখা, ‘আলহামদুলিল্লাহ! আটদিন কোয়ারেন্টিনে থাকার পর একটি ভালো সেশন।’ গত সাত দিনে পরপর তিনবার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয় ক্রিকেটারদের। আশার খবর, প্রথম দুই পরীক্ষার পর তৃতীয় ও শেষ পরীক্ষায়ও করোনা নেগেটিভ আসে বাংলাদেশ দলের সব খেলোয়াড়ের। নিউজিল্যান্ডের লিংকন গ্রিনে আজ থেকে সাতজনের ছোট ছোট গ্রুপ হয়ে অনুশীলন করেছেন তামিম-মুশফিকরা। বিসিবির মিডিয়া বিভাগ খবরটি নিশ্চিত করেছে। ১৪ দিন পার হলে স্বাধীনভাবে দলীয় অনুশীলন শুরু হবে। নিউজিল্যান্ড সফরে তিনটি করে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। আগামী ২০ মার্চ থেকে শুরু হয়ে যা চলবে ১ এপ্রিল পর্যন্ত। এই ছোট সূচির জন্য বাংলাদেশকে থাকতে হচ্ছে প্রায় দেড় মাসের মতো। করোনাভাইরাসের কারণে এই কঠিন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ দলের বর্তমান ঠিকানা ‘শ্যাডো বাই পার্ক হোটেল’। আগামী ২০ মার্চ থেকে ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ডের লড়াই। সিরিজের পরের দুই ওয়ানডে হবে ২৩ ও ২৬ মার্চ। কয়েকদিন আগে নিউজিল্যান্ড সফরের সূচিতে কিছুটা বদল এনেছিল স্বাগতিক ক্রিকেট বোর্ড। তবে সূচি বদলালেও আগের ভেন্যুতেই হবে খেলা। সিরিজের প্রথম ওয়ানডে হবে ডানেডিনে, দ্বিতীয়টি হবে ক্রাইস্টচার্চে আর শেষটি হবে ওয়েলিংটনে। এই ক্রাইস্টচার্চেই সবশেষ নিউজিল্যান্ড সফরে খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। ওই টেস্টের আগে ক্রাইস্টচার্চের একটি মসজিদে হামলা হলে টেস্ট সিরিজের মাঝপথে দেশে ফিরে আসে বাংলাদেশ দল। আসন্ন সফরে আগামী ২৮ মার্চ থেকে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের পরের দুটি টি-টোয়েন্টি হবে ৩০ মার্চ ও ১ এপ্রিল। প্রথম ম্যাচটি হবে হ্যামিল্টনে, দ্বিতীয়টি নেপিয়ারে, শেষটি অকল্যান্ডে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply