sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মোদিবিরোধী বিক্ষোভে বিএনপির ইন্ধন রয়েছে : তথ্যমন্ত্রী




ড. হাছান মাহমুদ। ফাইল ছবি আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আগামী ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন ঘিরে যে বিক্ষোভ করছে তার পেছনে বিএনপির ইন্ধন রয়েছে। সেই গোমরটিই বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফাঁস করে দিয়েছেন। মোদি কেন বাংলাদেশে আসবেন এমন প্রশ্ন তুলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রমাণ করেছেন যে তারা ভারতবিরোধী, তারা বাংলাদেশের উন্নয়ন চায় না। আজ বুধবার দুপুরে নওগাঁর সাপাহার উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভারত আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ হিসেবে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধ থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের উন্নয়নে যথেষ্ট ভূমিকা রেখেছে। কিন্তু বিএনপি বাংলাদেশের ভালো চায় না, উন্নয়ন চায় না বলেই ভারতবিরোধী ভূমিকা রেখে চলেছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আগমন নিয়ে প্রশ্ন তোলার মধ্য দিয়ে বিএনপি প্রমাণ করেছে তারা ভারতবিরোধী বৈরিতা ভুলতে পারেনি। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে প্রতিবেশীর সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে হবে। যে দেশ আমাদের তিন দিকে বিস্তৃত সে দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক না রেখে আমাদের দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি সম্ভব নয়। তাই বিএনপিকে আহ্বান জানাব, এসব প্রশ্ন না তুলে সঠিক রাজনীতিতে ফিরে আসুন এবং ভারতবিরোধী যে রাজনীতি দীর্ঘ দিন ধরে অনুসরণ করে আসছেন সেটি বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য সহায়ক নয়। সম্মেলনে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যেহেতু ক্ষমতায় রয়েছে, সেজন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিনয়ী হতে হবে। এমনভাবে জনগণের সঙ্গে মিশতে হবে যাতে তারা মনে কষ্ট না পান। আচার-আচরণে বিনয়ী হতে হবে। মানুষের সুখ-দুঃখে সব সময় পাশে থাকতে হবে।’ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সাপাহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল আলম শাহ চৌধুরী। এ সময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস. এম. কামাল হোসেন, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার, ছলিম উদ্দীন তরফদার, আনোয়ার হোসেন হেলাল ও ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দীন জলিল জনসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply