sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » মেসি কি পারবেন খাদের কিনার থেকে দলকে তুলে আনতে?




মেসি কি পারবেন খাদের কিনার থেকে দলকে তুলে আনতে?

অসাধ্য সাধনের লক্ষ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। প্রথম পর্বে ৪-১ গোলে হেরে যাওয়ায় টিকে থাকতে চাইলে কাতালানদের জিততে হবে কমপক্ষে ৪-০ গোলের ব্যবধানে। কঠিন এই মিশনে নিজেদের উজাড় করে দিতে প্রস্তুত মেসিরা। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়াই করবে দল আশা কোচ রোনাল্ড কোম্যানের। অন্যদিকে নেইমার না থাকলেও জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী পিএসজি কোচ মৌরিসিও পচেত্তিনো। পার্ক দে প্রিন্সেসে ম্যাচটি শুরু হবে আজ রাত ২টায়। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। পার্ক দে প্রিন্সেসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শীর্ষ ষোলোর মঞ্চে নেমেছিল বার্সেলোনা-পিএসজি। ডি মারিয়া, কাভানি, ড্র্যাক্সলারদের তাণ্ডবে বিধ্বস্ত হয়েছিল কাতালানরা। তবে ফিরতি পর্বে ন্যু ক্যাম্পে অসাধ্য সাধন করেছিল বার্সা। ৬-১ গোলের জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল মেসিরা। ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস! চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আবারো এমন ক্ষণের সামনে দাঁড়িয়ে কাতালানরা। এবারো মঞ্চ শীর্ষ ১৬। তবে ভেন্যু আলাদা। প্রথম পর্বে ন্যু ক্যাম্পে ৪-১ গোলে হেরে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় বার্সেলোনা। এবার ফিরতি পর্বে কাতালানদের ইতিহাস গড়তে চাইলে করতে হবে পার্ক দে প্রিন্সেসে। কাজটা যে পাহাড় সমান কঠিন তা বার্সার ছোট্ট একজন সমর্থকও বোঝেন। কারণ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দুই পর্বের খেলায় নিজেদের মাঠে তিন গোলের ব্যবধানে হারের পর ঘুরে দাঁড়ানোর ঘটনা এখন পর্যন্ত ঘটেনি। তাই টিকে থাকতে চাইলে ইতিহাস রচনা করতে হবে মেসিদের। এ যাত্রায় বার্সেলোনার সামনে আত্মবিশ্বাস জোগানোর জন্য আছে আরো একটি পরিসংখ্যান। কদিন আগেই কোপা দলরে সেমিফাইনালে সেভিয়ার বিপক্ষে হেরে গিয়েও পরের পর্বের জয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় বার্সেলোনা। চমৎকার এই সুখ স্মৃতিগুলোই এখন বার্সেলোনার জাগরণের মূলমন্ত্র। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে চাইলে পেতে হবে কমপক্ষে ৪-০ গোলের জয়। কাতালানদের অনুপ্রেরণা জোগাতে অনুশীলনে ছুটে গেছেন মাত্রই সভাপতি নির্বাচিত হওয়া হোয়ান লাপোর্তে। মেসিদের কানে জপে দিয়েছেন জেগে ওঠার মন্ত্র। এখন দেখার পালা কতটুকু কাজ করে সে মন্ত্র। বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কোম্যান জানান, আমরা জানি কাজটা বেশ কঠিন। কিন্তু আমরা হারার আগে হেরে যেতে চাই না। পুরো দল ছন্দে আছে। বড় জয় নিয়েই পরের পর্বে যাব আশা করছি। ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে খেলতে পারবেন না কৌতিনিয়ো, আনসু ফাতি, সার্জি রবার্তোরোনাল্ড আরাওজো ও পিকে। প্রতিপক্ষ পিএসজি শিবিরে নেই দলের সেরা অস্ত্র নেইমার। তবে তা নিয়ে চিন্তা নেই পচেত্তিনোর। কারণ ব্রাজিলিয়ান তারকাকে ছাড়াই প্রথম পর্বে জিতেছে তারা। নেইমার না থাকায় মেসির সঙ্গে পুনর্মিলন দেখার সুযোগ হচ্ছে না সমর্থকদের। এ ছাড়া করোনা পজিটিভ হওয়ায় খেলতে পারবেন না ময়েসে কিন। পিএসজি কোচ পচেত্তিনো জানান, নেইমার নেই। তবে অন্যরা সে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত আছে। আশা করছি ম্যাচটা আমরাই জিতব। দুই দলের এখন পর্যন্ত ৯ বারের দেখায় চার জয়ে এগিয়ে আছে বার্সেলোনা। তিন জয় পিএসজির।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply