sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » মৌসুমী-সানীর পুত্র বধূ কে এই আয়েশা?




ঘরে পুত্র বধূ এনেছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় তারকা দম্পতি মৌসুমী ও ওমর সানী। ছেলে ফারদীন এহসান স্বাধীনকে বিয়ে দিয়েছেন তারা। যদিও বিয়ের এ খবর ইতিমধ্যে সবাই পেয়ে গেছেন। তবে যার সঙ্গে ছেলের বিয়ে দিয়েছেন এই তারকা দম্পতি, সেই মেয়ের আসল পরিচয় কি, তা নিয়ে কৌতুহল দেখা দিয়েছে অনেকের মনে। সানী-মৌসুমীর ছেলের বউ কুমিল্লার মেয়ে। নাম সাদিয়া রহমান আয়েশা। জন্মসূত্রে সে বাংলাদেশি। তবে মেয়ের মা-বাবা কানাডায় থাকেন। সেই সূত্রে আয়েশাও থাকেন সেখানে। তার পড়াশোনা ও বেড়ে ওঠা সেখানেই। কয়েক মাসে আগে ফারদীনের সঙ্গে পরিচয় হয় আয়েশার। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে তৈরি হয় বন্ধুত্ব। এরপর ভালো লাগা, তারপর ভালোবাসা। সে কথা দুই পরিবারের সঙ্গে ভাগাভাগি করেন দু’জন। এরপর পারিবারিক আলোচনার ভিত্তিতে বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করা হয়। ছেলে বিয়ের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন ওমর সানী নিজেই। সোমবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় তিনি বলেন, ২৬ মার্চ আমার ছেলের আকদ সম্পন্ন হয়েছে। আকদ করে আমরা বউ নিয়ে এসেছি। ওদের জন্য দোয়া করবেন। সেই সঙ্গে সানী-মৌসুমীর ছেলে ফারদীন এহসান স্বাধীন স্ত্রীর সঙ্গে ছবি শেয়ার করেছেন। তার ফেসবুকে একাধিক ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। পাশাপাশি যুক্ত করেছেন লাইফ ইভেন্ট। স্বাধীনের ফেসবুক সূত্রে জানা গেছে, ২৬ মার্চ বিয়ে করেছেন তিনি। যা একটি ইতিহাস। অর্থাৎ বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী। যেহেতু তার নামের সঙ্গে স্বাধীন রয়েছে তাই বিশেষ এই দিনটিকে স্মরণে রাখতে চেয়েছেন। স্বাধীন নিজের বিয়ের বেশকিছু ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করেছেন। ঈদের পর তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হবে। এতে দুই পরিবারের সদস্য ছাড়াও মৌসুমী-ওমর সানীর সহশিল্পী, নির্মাতাদেরও আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানিয়েছে সানী-মৌসুমী পরিবার। উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সালের ৪ মার্চ বিয়ে করেন ঢালিউডের জনপ্রিয় দম্পতি মৌসুমী ও ওমর সানী। এরপর ২৫ বছর একসাথে আছেন। তাদের সংসারে রয়েছে এক মেয়ে ও এক ছেলে। এবার সেই সংসারে যোগ হয়েছে আরো এক সদস্য। এখানে আরও উল্লেখ্য যে, বেশ আগে ফারদিন পরিচালনায় নাম লেখিয়েছেন। ‘ডেস্টিনেশন’ নামে একটি টেলিফিল্ম নির্মাণ করেন। তাছাড়া, বেশ কটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন তিনি। পাশাপাশি রাজধানী উত্তরায় ‘মেরিমন্টানা’ নামে একটি রেস্তোরাঁ পরিচালনা করছেন ফারদিন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply