sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » গাংনী উপজেলার দেবীপুর গ্রামে শ্বশুর পক্ষের হামলায় আহত শরিফুলের মৃত্যু




শ্বশুর পক্ষের লােকজনের হামলায় আহত শরিফুল ইসলাম (৪৮) মারা গেছেন। নিহত শরিফুল উপজেলার বামন্দী শহর সংলগ্ন নিশিপুর গ্রামের ভাদু শেখের ছেলে। মঙ্গলবার (৯মার্চ) দিবাগত মধ্যে রাতে আহত শরিফুল কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। স্থানীয়রা জানান,শরিফুল ইসলাম ১৫ বছর আগে বিয়ে করেন দেবীপুর গ্রামের আতাহার আলীর মেয়ে রােজিনা খাতুনের সাথে। তাদের সংসার জীবনে রয়েছে ২টি সন্তান। বিয়ের পর থেকে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্য প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকতাে। সোমবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে শরিফুল নিজ গ্রাম নিশিপুর থেকে শশুর বাড়ি দেবীপুর গ্রামে যান। সেখানে গিয়ে স্ত্রী রোজিনাকে বোনের বাড়ি বেড়াতে যাওয়াকে কেন্দ্র করে মারধর করেন।এসময় ক্ষিপ্ত হয়ে রােজিনার বাবার পক্ষের লােকজন শরিফুলকে বেঁধে রেখে পাল্টা হামলা করে রক্তাক্ত জখম করেন। এক পর্যায়ে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মুখে আগাছানাশক বিষ ঢেলে দেয়। পরে প্রতিবেশীরা টের পেয়ে স্থানীয় বামন্দী পুলিশ ক্যাম্পে খবর দেয়। খবর পেয়ে মঙ্গলবার (৯ মার্চ) সকাল ৯টার দিকে বামন্দী ক্যাম্পের পুলিশ সদস্যরা দেবীপুর গ্রাম থেকে শরিফুলকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে। এদিকে স্থানীয়রা আহত রােজিনাকে উদ্ধার গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। নিহত শরিফুলের মামাতাে ভাই একই উপজেলার তেরাইল গ্রামের ইলিয়াস হােসেন জানান, শরিফুল তার স্ত্রী সাথে মারামারির সময় রােজিনার বাবার পক্ষের লােকজন শরিফুলকে বেঁধে রেখে হামলা করে আহত করেন। হামলার পর শরিফুলকে হত্যার উদ্দেশ্যে মুখে বিষ ঢেলে দেয়। গাংনী থানার ওসি বজলুর রহমান জানান এ ঘটনার পর থেকে জড়িতরা পলাতক রয়েছে। তাদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply