sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » এবার সিরিয়া থেকে ইসরায়েলে রকেট হামলা




এবার সিরিয়া থেকে ইসরায়েলে রকেট হামলা

ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে এবার সিরিয়া থেকে রকেট হামলা হয়েছে। শুক্রবার (১৪ মে) সিরিয়ার দিক থেকে অন্তত তিনটি রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। খবর আল জাজিরার। তবে ওই হামলায় কোনো হতাহত বা ইসরায়েলের কোনো স্থাপনা ধ্বংস কিংবা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কিনা তা জানা যায়নি। অবশ্য ইসরায়েলি সেনাবাহিনী দাবি করেছে, রকেটগুলো সিরিয়ার ভেতরেই পতিত হয়েছে। এতে তাদের কোনো ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। এই হামলা কারা চালিয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া না গেলেও ধারণা করা হচ্ছে, হিজবুল্লাহ যোদ্ধারা এই হামলা চালাতে পারে। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ মে) দক্ষিণ লেবানন থেকে ইসরায়েলের দিকে রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছিল। সীমান্তের নাকৌড়ার উত্তরে ক্লাইলেহ অঞ্চল থেকে তিনটি রকেট নিক্ষেপ করা হয়। ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের রকেট হামলাও অব্যাহত রয়েছে। শুক্রবার সকালের দিকে আশকেলন শহরে তাদের রকেট আঘাত হেনেছে। ইসরায়েলের বিভিন্ন স্থানে শত শত রকেট হামলা করা হয়েছে। এছাড়া পশ্চিমতীরে ইসরায়েলের অবৈধ বসতিস্থাপনকারী ও ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মধ্যে সংঘাত অব্যাহত রয়েছে। এদিকে অবরুদ্ধ গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর হামলা অব্যাহত চলছে। শুক্রবারও বিমান হামলার পাশাপাশি কামানের গোলাও নিক্ষেপ করা হচ্ছে। এতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৯। নিহতদের মধ্যে ৩১টি শিশু ও ১৯ নারী রয়েছেন। পাঁচদিন আগে শুরু হওয়া সংঘাতে এখন পর্যন্ত ৮৩০ জনের মতো আহত হয়েছেন। উত্তর গাজার জাতিসংঘ পরিচালিত স্কুলে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে হাজার হাজার গাজাবাসীকে। এ যাবত কালের সবচেয়ে সহিংস রাত পার করার জানিয়েছেন ফিলিস্তিনিরা। সহিংসতা বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আহ্বান সত্ত্বেও ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেন, অভিযান অব্যাহত থাকবে। উল্লেখ্য, সোমবার (১০ মে) থেকে গাজায় বিমান হামলা শুরু করে ইসরাইলি বাহিনী, যা এখনো অব্যাহত রয়েছে। এ হামলায় অন্তত ১২২ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন প্রায় হাজার খানেক। অন্যদিকে হামাসের রকেট হামলায় এখন পর্যন্ত আটজন ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুই শিশু, একজন ভারতীয়, একজন বয়স্ক নারী ও এক ইসরায়েলি সেনাসদস্য রয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন কয়েক ডজন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply