sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » স্টার্টআপদের নিয়ে অনলাইনে বুটক্যাম্প শুরু




বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২১ এর নির্বাচিত স্টার্টআপদের নিয়ে অনলাইনে বুটক্যাম্প শুরু হয়েছে। শনিবার (১২ জুন) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক প্রধান অতিথি হিসেবে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে বুটক্যাম্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২১ এর নির্বাচিত ৬৫টি স্টার্টআপদের নিয়ে আজ থেকে অনলাইনে ৫ দিনের ‘বুটক্যাম্প’ শুরু করছে আইসিটি বিভাগের উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ (আইডিয়া) প্রকল্প। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্টার্টআপদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, পারস্পারিক সহযোগিতা ও কঠোর অনুশীলনের মাধ্যমে প্রযুক্তিকে ব্যবহার এবং নিজেদের মেধা-শক্তিকে কাজে লাগিয়ে নতুন নতুন উদ্ভাবন করতে হবে। আমাদের মেধাবী তরুণ উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকরাই আগামীদিনের উন্নত বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ বুটক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী স্টার্টআপরাই যথাযথ নার্সিং ও ইনকিউবেশন গ্রহণের মাধ্যমে তাদের স্বপ্ন পূরণ করে নিজেদের আত্মনির্ভরশীল করার পাশাপাশি বিশ্বে বাংলাদেশকে একটি মর্যাদাশীল দেশে পরিণত করবে। তরুণ উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকদের সহযোগিতার মাধ্যমে স্টার্টআপ কালচার ও এন্টারপ্রেনিয়র সাপ্লাই চেইন গড়ে তুলতে আইসিটি বিভাগ ৩৯টি হাইটেক পার্ক, ৬৪টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার, ঢাকার কারওয়ান বাজারে ইনোভেশন সেন্টার স্থাপনসহ সার্বিক সহযোগিতা দেয়ার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে; যা প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। নবীন উদ্যোক্তাদের বড় স্বপ্ন নিয়ে ছোট পরিসরে শুরু করে লক্ষ্য ছুঁতে ক্ষিপ্রতায় এগিয়ে যেতে হবে। প্রতিমন্ত্রী অংশগ্রহণকারী স্টার্টআপদের অনুরোধ জানিয়ে বলেন, থিংক বিগ, স্টার্ট স্মল, মুভ ফার্স্ট। বুটক্যাম্পে প্রত্যেক উদ্যোক্তাকেই নীরবে নজরে রাখা হবে। সবাইকে ইনোভেশনে সতর্কতা ও মনযোগের সঙ্গে এগিয়ে যেতে হবে। এই ৬৫টি সাটার্টআপ আমাদের আগামীদিনের বাংলাদেশের অর্থনীতির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পলক আরও বলেন, পাঠাও-ট্রাক লাগবের মতো আগামীদিনের স্টার্টআপগুলো যেন দেশের সমস্যাগুলোর সমাধান করে, প্রয়োজন মিটিয়ে লাখ-লাখ, কোটি-কোটি তরুণ-তরুণীর আরো নতুন নতুন কর্মসংস্থান তৈরি করতে পারে, সেটিই আমাদের লক্ষ্য। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংযুক্ত ছিলেন- স্টার্টআপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিনা এফ জাবিন, আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক আব্দুর রাকিব প্রমুখ। উল্লেখ্য, বুটক্যাম্প ১২ জুন থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত চলবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply