sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ঐক্যবদ্ধ ইসরায়েল গড়ার ডাক দিলেন নাফতালি বেনেত




জোট গড়ার অনুমোদনের পর প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেত। ডাক দিয়েছেন ঐক্যবদ্ধ ইসরায়েল গড়ার। আর এরমধ্য দিয়ে অবসান হলো বিনইয়ামিন নেতানিয়াহুর টানা ১২ বছরের শাসনের। নেতানিয়াহুর পতনের খবরে তেল আবিবের রাস্তায় উল্লাসে মেতে ওঠেন হাজার হাজার ইসরায়েলি। সদ্য ক্ষমতা হারানো প্রধানমন্ত্রী বিন ইয়ামিন নেতানিয়াহুর পতনের খবরে তেল আবিবের রাস্তায় এভাবেই উল্লাসে মেতে ওঠেন হাজার হাজার ইসরায়েলি। ইসরায়েলের জাতীয় পতাকা হাতে নেচে গেচে বিজয় উদযাপন করেন তারা। করোনা মাহামারি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতা ও দুর্নীতির অভিযোগে গত এক বছর ধরে নেতানিয়াহুর পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছিলেন সাধারণ মানুষ। নেতানিয়াহুর এ পতন নিজেদের বিজয় হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। ইসরায়েলি পার্লামেন্ট নেসেটে জোট সরকার গড়ার অনুমোদনের পরপরই মন্ত্রিসভার বৈঠকে বসেন নতুন প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেত। ইসরায়েলিদের মধ্যে যে ভাঙন দেখা দিয়েছে তা সারিয়ে তোলার অঙ্গীকার করেন তিনি। নাফতালি বেনেট বলেন, আমরাই নতুন দিনের সারথী। ইসরাইলি নাগরিকরা আমাদের যেভাবে দেখতে চান আমরা সেটাই বাস্তবায়ন করব। ইসরায়েলিদের মধ্যে ঐক্য ফিরিয়ে আনাই আমাদের লক্ষ্য। এর আগে রোববার ইসরায়েলি পার্লামেন্ট নেসেটে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে মাত্র এক ভোটের ব্যবধানে জোট সরকারের অনুমোদন পান নাফতালি বেনেত। এর মধ্য দিয়ে অবসান ঘটে বিন ইয়ামিন নেতানিয়াহুর টানা এক যুগ শাসনের। তিন মেয়াদে বিভিন্ন সময় নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর নির্যাতন চালানো নেতানিয়াহুকে ক্ষমতা থেকে সরাতে সম্প্রতি জোট বাঁধে একেবারেই বিপরীত আদর্শের বাম, ডান ও মধ্যপন্থি দলগুলো। ক্ষমতা ভাগাভাগি করার শর্তে আরব দলের সঙ্গেও আপোস করেন নেতানিয়াহুর একসময়ের শিষ্য ও নতুন প্রধানমন্ত্রী ইয়ামিনা দলের নাফতালি বেনেত। তবে প্রধানমন্ত্রী থেকে বিরোধী দলের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে যাওয়া বিন ইয়ামিন নেতানিয়াহু আবারো ক্ষমতায় আসার অঙ্গীকার করেছেন। নেতানিয়াহু বলেন, আমাদের লিকুদ পার্টি আবারো ক্ষমতায় আসবে। যারা ডানপন্থি দলের জন্য ভোট দিয়েছেন সবাইকে ধন্যবাদ। নতুন সরকার ইসরায়েলের নিরাপত্তার জন্য চরম হুমকি। এর মধ্যেই, ক্ষমতা হারানোয় নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আবারো সুষ্ঠুভাবে তদন্তের দাবি উঠেছে। সূত্র: জেরুজালেম পোস্ট/রয়টার্স






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply