sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মমতা-মোদির রাজনৈতিক লড়াই রূপ নিয়েছে প্রশাসনিক যুদ্ধে




মমতা-মোদির রাজনৈতিক লড়াই এখন রূপ নিয়েছে প্রশাসনিক যুদ্ধে। সমর্থকদের মধ্যে তুমুল প্রত্যাশা বাড়িয়েও তৃণমূলের কাছে কার্যত ‘গো-হারা’ হেরেছে নরেন্দ্র মোদির দল বিজেপি। অন্যদিকে নিভু নিভু আলো নিয়েও পূর্ণ উজ্জ্বলতায় তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। তাই এখন লড়াইটা হয়ে উঠেছে কেন্দ্র বনাম পশ্চিমবঙ্গ সরকারের। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর উক্তি- ‘দিদি আপনি প্রাক্তন হয়ে যাবেন ২ মে আপনাকে প্রাক্তন সনদ দিয়ে বিদায় করা হবে।’ বিধানসভা ভোটে ঠিক এভাবেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘ভবিষ্যৎ’ বলে দিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী তথা বিজেপির হয়ে প্রচারে আসা নরেন্দ্র মোদি। তবে মোদির এ কথা যে সত্যি হয়নি সেটা ২ মে'তে প্রমাণ হয়। বরং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তার প্রত্যেক নির্বাচনী প্রচারে বলেছিলেন খেলা হবে, বাংলা থেকে বিজেপিকে তাড়ানো হবে; সেটাই সত্যি হয়েছে। নির্বাচনী প্রচারের এই রাজনৈতিক লড়াই এখন রাজ্য বনাম কেন্দ্রের মধ্যে প্রশাসনিক লড়াইয়ে পরিণত হয়েছে। ২৮ মে প্রধানমন্ত্রীর সভা এড়িয়ে যাওয়ায় মমতার সরকারের মুখ্য সচিবকে সরানোর নির্দেশ দেওয়ার পর মমতার উল্টো চালে ফের মুখ পুড়ল মোদি সরকারের। মুখ্য সচিবের পদ থেকে নিজেই অব্যাহতি দিয়েছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তুখোড় ওই আমলাকে এখন করা হয়েছে মমতার মুখ্য উপদেষ্টা। যদিও পিঁছু হটতে নারাজ নরেন্দ্র মোদিও। সরকারি চাকরির বিধি ভাঙায় আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সরকার নিচ্ছে বড়সড় পদক্ষেপ। যা নিয়ে নতুন করে মমতা-মোদির প্রশাসনিক যুদ্ধের আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে হুমকি দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, কেন্দ্র প্রতিহিংসামূলক রাজনীতি করেছে। এর জন্য ওদের পস্তাতে হবে। সোমবার (৩১ মে) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নর্থ ব্লকে কাজে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে চিঠি এসেছিল নবান্নে। তারপরই সাংবাদিক বৈঠক করে আলাপনকে তার মুখ্য উপদেষ্টা পদে নিয়োগের ঘোষণা করেন মমতা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply