sponsor

sponsor

Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি

খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার

যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব খাজা মিয়ার যোগদান




মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব খাজা মিয়ার যোগদান মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব হিসেবে যোগদান করেছেন খাজা মিয়া। বুধবার (২ জুন) সকালে মন্ত্রণালয়ে যোগদান করেন তিনি। যোগদান শেষে তিনি মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে পরিচিতি হন। এ সময় তিনি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী, বিদায়ী সচিব তপন কান্তি ঘোষ এবং মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ নতুন সচিবকে অভিনন্দন ও স্বাগত জানান। গত ৩০ মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে খাজা মিয়াকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব হিসেবে পদায়ন করা হয়। খাজা মিয়া ১৯৯১ সালে ১০ম বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে যোগদান করেন। সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ম্যাজিস্টেট এবং বালাগঞ্জ ও বিশ্বনাথ থানায় সহকারি কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৯ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত নরসিংদী জেলায় এনডিসি হিসেবে কাজ করেন। রাজবাড়ি, নেত্রকোনা ও ময়মনসিংহ জেলায় প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে ২০০৩ সালে চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলায় নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেন এবং একাধারে তিন বছরের অধিক সময় দায়িত্ব পালন করে ২০০৬ সালের এপ্রিল মাসে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে সিনিয়র সহকারী সচিব হিসেবে যোগদান করেন। তিনি স্থানীয় সরকার বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হিসেবে কাজ করেন। ২০১৫ সাল থেকে সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর হিসেবে ৪ বছরের অধিক সময় দায়িত্ব পালন শেষে ২৮ নভেম্বর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে যোগদান করেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ খাজা মিয়া গত বছরের ৩০ নভেম্বর হতে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। স্থানীয় সরকার বিভাগে কর্মকালীন সময়ে সার্কভূক্ত দেশগুলোর সমন্বয়ে গঠিত ওয়াটার সাপ্লাই ও সেনিটেশন বিষয়ক ইন্টারকান্ট্রি ওয়ার্কিং গ্রুপের বাংলাদেশ প্রতিনিধি হিসেবে ২ বছরের অধিক সময় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে অবস্থিত ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিনিউকেশন ইউনিভার্সিটিতে টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড নেটওয়ার্কিং ম্যানেজমেন্ট বিষয়ক কোর্স সম্পন্ন এবং কৈকা ও জাইকার আয়োজনে যথাক্রমে স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাপনা ও ওয়াটার সাপ্লাইয়িং বিষয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত ডিউক ইউনিভার্সিটি হতে স্ট্র্যানদিনিং অব বিসিএস এডমিন ক্যাডার অফিসার্স বিষয়ক কোর্স সম্পন্ন করেন। খাজা মিয়া নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলা অন্তর্গত ফুলদাহ গ্রামে ১৯৬৫ সালের ৫ জুলাই সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮০ সালে চাচুড়ী পুরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় হতে এসএসসি, ১৯৮২ সালে সরকারি বিএল কলেজ খুলনা হতে এইচএসসি পাশ করেন। ১৯৮৬ সালে নিয়মিত ব্যাচের ছাত্র হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ হতে অনার্সসহ মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। সরকারি দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবে তিনি যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, চীন, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ ও এশিয়ার প্রায় ত্রিশটির মতো দেশ সফর করেন। তিনি বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন (বাসা) এর নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ব্যাক্তিগত জীবনে তিনি দুই ছেলে সন্তানের জনক। তার স্ত্রী খালেদা আক্তার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply