sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » এবার মিশন বাংলাওয়াশ!




অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বহুল আলোচিত টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। প্রতিটি ম্যাচেই বাংলাদেশি বোলারদের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের। নাসুম, মোস্তাফিজ, সাকিব, শরিফুলরা বিন্দুমাত্র সুযোগ দেননি অজি ব্যাটসম্যানদের। তাদের বোলিংয়েই বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে। এবার মিশন হোয়াইটওয়াশ! বাংলাওয়াশ-ই বলা ভালো। সিরিজের বাকি দুটি অর্থাৎ আজ শনিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিতব্য চতুর্থ ম্যাচ জিতলেই বাংলাওয়াশের মিশনে এগিয়ে যাবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়, যা সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, গাজী টেলিভশন ও টি-স্পোটর্স। অবশ্য জয়ের ধারায় ফিরতে অস্ট্রেলিয়া তৃতীয় ম্যাচেই নিজেদের পরিকল্পনায় ব্যাপক পরিবর্তন আনে। আগের দুই ম্যাচের একাদশ থেকে তিন ক্রিকেটারকে বিশ্রামে পাঠিয়ে সুযোগ দেয় নতুন তিন জনকে। তাদের মধ্যে প্রত্যাশা পূরণ করেছেন অভিষিক্ত নাথান এলিস। অভিষিক্ত প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেছেন এই পেসার। তার বোলিংয়ে বাংলাদেশ ১২৭ রানে অলআউট হলেও হাসিমুখে হোটেল রুমে ফিরতে পারেনি সফরকারীরা। দ্বিতীয় ম্যাচের মতো শুক্রবার মুস্তাফিজের কাছে হার মানে অজিরা। হারের বৃত্তে আটকে থাকা অস্ট্রেলিয়া আজ চতুর্থ ম্যাচে হয়তো নতুন কিছু করার চেষ্টা করবে। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক ম্যাথিউ ওয়েডতো ঘুরে দাঁড়ানোর বিশ্বাস পাচ্ছেন এলিসকে দেখেই, “ক্রিকেট মজার একটি খেলা। ৩৪ রান দিয়ে একটিও উইকেট না থাকতে পারত তার। কিন্তু শেষ তিন বলে তার ফিগার ৩৪ রানে ৩ উইকেট। ক্রিকেটে এভাবেই ঘুরে দাঁড়ানো যায়। এটি মাথায় রেখেই আমাদের সফরের বাকিটায় তাকাতে হবে। দ্রুত ঘুরে দাঁড়াতে হবে।” আশা নিয়ে ওয়েড বলেন, “আরও দুটি সুযোগ আছে আমাদের। বিশ্বকাপের আগে প্রতিটি সুযোগই মূল্যবান। ব্যক্তিগতভাবে ও দলীয়ভাবে কিছু দিক ঠিক করতে চাইব আমরা এবং শেষ করতে চাইব জয় দিয়ে। ম্যাচ জিততে গেলে আমাদের ব্যাটিংটা ভালো করতে হবে। আমরা সেদিকেই তাকিয়ে আছি।” এদিকে, সিরিজে জয়ের উৎসবের রাতে মাহমুদউল্লাহও জানিয়ে দিলেন, এখানেই থামতে চান না তারা। আজকের ম্যাচ ঘিরে নিজেদের পরিকল্পনার কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ৩-০ তে এগিয়ে আছি, সিরিজ জিতেছি। আমাদের কাজ শেষ হয়নি। আমাদের জন্য সুযোগ কালকের (আজকের) ম্যাচটাও জেতার। আমরা সেইদিকেই তাকিয়ে আছি।’ তবে টানা তিন ম্যাচেই ব্যর্থ হয়েছে ওপেনিং জুটি। তার পরও বিপদে পড়তে হয়নি স্বাগতিক দলকে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাকি দুই ম্যাচে ব্যাটিংয়ে উন্নতি চান মাহমুদউল্লাহ। তিনি মনে করেন, ব্যাটসম্যানরা স্কোরবোর্ডে আরও কিছু রান যোগ করতে পারলে, বোলারদের জন্যই কাজটা সহজ হবে। সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলার পরও তাই বাংলাদেশ দলে পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণই বলা চলে। শেষ পর্যন্ত পরিবর্তন হলে হয়তো টানা তিন ম্যাচে ব্যর্থ সৌম্যকে বিশ্রাম দেয়া হতে পারে। তার জায়গায় দলে দেখা যেতে পারে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে। সেক্ষেত্রে নাঈম শেখের সাথে ইনিংস সূচনায় সঙ্গী হতে পারেন শেখ মেহেদী হাসান। দুই দলের সম্ভাব্য একাদশ বাংলাদেশ: মোহাম্মদ নাঈম শেখ, শেখ মাহেদী হাসান, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসাইন ধ্রুব, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), শামীম হোসাইন পাটোয়ারি, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, নাসুম আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম। অস্ট্রেলিয়া: অ্যালেক্স ক্যারে, বেন ম্যাকডারমট, মিচেল মার্শ, মোইজেজ হেনরিকস, ম্যাথিউ ওয়েড (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), অ্যাশটন টার্নার, অ্যাশটন অ্যাগার, ড্যান ক্রিশ্চিয়ান, অ্যাডাম জাম্পা, নাথান এলিস, জশ হ্যাজলউড






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply