sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » রাহুলের সঙ্গে আমার প্রেম নেই কিন্তু প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সৌজন্যমূলক সম্পর্ক আছে: সন্দীপ্তা




ইন্ডাস্ট্রি বলে, সন্দীপ্তা মানেই পায়ের তলায় সরষে। ধারাবাহিকের একটানা ব্যস্ততার মাঝেও তাই একদিনের জন্য মা-বাবাকে নিয়ে বেরিয়ে পড়ার ফাঁক খুঁজে ফেলেছেন ‘মা সারদা’। শ্যুট থেকে ফিরে ঘুরতে যাওয়ার গোছগাছ শুরুর আগে ফোনে আড্ডা দিলেন আনন্দবাজার অনলাইনের সঙ্গে। কাজ থেকে ব্যক্তিগত জীবন— সব কিছু নিয়ে অকপট সন্দীপ্তা সেন। প্রশ্ন: আপনাকে তো ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই ‘অলরাউন্ডার’ বলছেন… সন্দীপ্তা: (অবাক হয়ে) এই রে! কেন বলুন তো? প্রশ্ন: ওয়েব সিরিজ, ধারাবাহিক, ছবি— সবেতেই তো এখন সন্দীপ্তা সেন। সন্দীপ্তা: হ্যাঁ। আসলে অভিনেত্রী হিসেবে আমি সব ধরনের কাজই করতে চাই। ভাল সুযোগ পেলে সময় বার করে নিতে অসুবিধা হয় না। প্রশ্ন: এক দিকে নিমা প্রধানের মতো চরিত্র, আবার ধারাবাহিকে মা সারদা। ভারসাম্য রাখতে অসুবিধা হয়নি? সন্দীপ্তা: না। আসলে ‘মার্ডার ইন দ্য হিলস’-এর কাজ তো ফেব্রুয়ারিতেই শেষ করে ফেলেছিলাম। মা সারদা হয়েছি তার পরে। দর্শক যদিও দু'টি চরিত্রকেই প্রায় এক সময়ে দেখেছেন। অভিনেত্রী সন্দীপ্তাকে তাঁরা ভালবাসেন বলেই হয়তো দু’ভাবেই আমাকে মেনে নিয়েছেন। প্রশ্ন: আপনি তো বলেছিলেন, ধারাবাহিক থেকে বিরতি নিচ্ছেন… সন্দীপ্তা: সেই রকমই ভেবেছিলাম। অনেক দিন তাই ছোটপর্দায় কাজ করিনি। কিন্তু মা সারদার চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়ে রাজি হয়ে গেলাম। এই ধারাবাহিকে আমি ছ’মাসের জন্য এসেছি। সুতরাং খুব বেশি দিনের কাজ নয় এটা। আর ‘রাণী রাসমণি’-র মতো ধারাবাহিকে কাজ করতে পারাটাও আমার কাছে একটা ভাল লাগার জায়গা। প্রশ্ন: কিন্তু দিতিপ্রিয়া রায় চলে যাওয়ার পর ‘রাণী রাসমণি’-র টিআরপি কমেছে… সন্দীপ্তা: সত্যিই টিআরপি কমেছে কি? আমি অন্তত সে রকম কিছু শুনিনি। কমে থাকলে তারও একটা কারণ আছে বলে আমি মনে করি। প্রশ্ন: কী কারণ? সন্দীপ্তা: লকডাউনের সময় সব ধারাবাহিকের নতুন পর্ব শ্যুট হলেও ‘রাণী রাসমণি’-র পুরনো পর্বগুলোই দেখানো হয়েছে। এ ছাড়াও একটা ধারাবাহিক এত বছর ধরে চলছে। মানুষ দিতিপ্রিয়াকে নিজের পরিবারের সদস্য ভেবে ফেলেছিলেন। ওর চলে যাওয়ার পরের পরিবর্তন মানিয়ে নিতে কিছু সময় তো লাগবেই। প্রশ্ন: দর্শক কিন্তু দিতিপ্রিয়ার সঙ্গে আপনার তুলনা করছে… সন্দীপ্তা: (হেসে উঠে) কী বলছেন! ও আমার ছোট্ট বোনের মতো। সেই ‘দুর্গা’ ধারাবাহিকের সময় থেকে আমাদের পরিচয়। সুতরাং মানুষ যদি সত্যিই তুলনা করেও থাকেন, তাতে আমার সঙ্গে দিতিপ্রিয়ার সম্পর্কে কোনও পরিবর্তন আসবে না। কিন্তু তুলনাটা আসছেই বা কেন বলুন তো? আমি তো ধারাবাহিকে ‘রাসমণী’-র চরিত্র করছি না। সেটা করলে মানুষ তুলনা টানতে পারতেন। অভিনেত্রী হিসেবে সেই তুলনাকে আমি মেনেও নিতাম। কিন্তু এ ক্ষেত্রে সেই প্রশ্নই ওঠে না।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply