sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » টিকা নিলে ওমরাহ করতে বাধা নেই




বিশ্বের বিভিন্ন দেশের টিকা নেওয়া মুসল্লিরা সৌদি আরবে ওমরাহ করতে পারবেন। এ ছাড়া কাউকে সেখানে যাওয়ার অনুমোদন দেওয়া হবে না। রোববার (৮ আগস্ট) সকালে স্থানীয় সোমবার (৯ আগস্ট) থেকে ওমরাহের আবেদন করলে তা গ্রহণ করবে দেশটির কর্তৃপক্ষ।-খবর আলজাজিরার এর আগে ১৮ মাস আগে মহামারি নিয়ন্ত্রণে বিদেশি মুসল্লিদের জন্য সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছিল সৌদি আরব। দেশটির সংবাদ সংস্থা এসপিএ জানিয়েছে, মুসল্লিদের সমন্বয় করা মন্ত্রণালয়ের কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের কাছ থেকে আবেদন গ্রহণ করা শুরু করে দিয়েছে। প্রাথমিকভাবে প্রতি মাসে ৬০ হাজার মুসল্লিকে ওমরাহ করতে অনুমোদন দেওয়া হবে। পরবর্তীতে ধীরে ধীরে তা বাড়িয়ে ২০ লাখ করা হবে। বিদেশিদের ওমরাহের অনুরোধের পাশাপাশি করোনার টিকার সনদও জমা দিতে হবে। তবে সৌদি ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞায় থাকা দেশগুলোর নাগরিকদের টিকা নেওয়ার পরেও প্রাথমিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। ইসলামি পরিভাষায় ওমরাহ অর্থ ইহরাম অবস্থায় কাবার চারপাশে তাওয়াফ ও সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের মধ্যখানে সায়ি করা। হজের সঙ্গে এদিক থেকে ওমরার সাদৃশ্য রয়েছে। তবে হজের গুরুত্ব ওমরাহের চেয়ে বেশি। প্রত্যেক সক্ষম মুসলমানের জন্য জীবনে একবার হজ করা ফরজ। ওমরাহের ক্ষেত্রে এই বাধ্যবাধকতা নেই। তবে এতে উৎসাহিত করা হয়েছে। করোনার কারণে হজ ও ওমরাহ বাধাগ্রস্ত হয়েছে। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় আয়ের বড় উৎস হিসেবে বিবেচনা করা হয় এই দুই খাতকে। স্বাভাবিক সময়ে হজ ও ওমরাহ থেকে এক কোটি ২০ ডলার আয় করে উপসগারীয় দেশটি। মহামারির কারণে ওমরাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু গত বছরের অক্টোবরে প্রতিষেধক নেওয়া ঘরোয়া মুসল্লিদের জন্য ইসলামের পবিত্র দুই শহর মক্কা ও মদিনা খুলে দেওয়া হয়েছিল। গত বছর ও চলতি বছরের জুলাইয়ে হজ পালিত হয়েছে। এতে সীমিত সংখ্যক মুসল্লি অংশ নিয়েছেন। মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী দেশটিতে এখন পর্যন্ত পাঁচ লাখ ৩২ হাজার করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মারা গেছেন আট হাজার ৩০০ জন। ইতিমধ্যে দেশটিজুড়ে ব্যাপকভিত্তিক টিকা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মূলত পর্যটন ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, বিনোদনের বড় বড় কনসার্টসহ মহামারির ধাক্কায় পর্যুদস্ত খাতগুলোকে চাঙা করতেই মরিয়া সৌদিরা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক ভেন্যুসহ সরকারি ও বেসরকারি কার্যালয়ে ঢুকতে হলে করোনার টিকা নেওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply