sponsor

sponsor


Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ড্রোন দিয়ে যে ভয়াবহ হামলার পরিকল্পনা করে 'বোমা মিজান'




দেশের গুরত্বপূর্ণ স্থাপনায় ড্রোন বোমা হামলার প্রধান পরিকল্পনাকারীসহ নব্য জেএমবির তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। সকালে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। সিটিটিসি জানায়, নব্য জেএমবির সামরিক শাখার প্রশিক্ষক ও প্রস্তুতকারক হিসেবে নিয়োজিত ছিলো 'মোস্ট ওয়ান্টেড' জাহিদ হাসান ওরফে বোমা মিজান। অন্যদিকে রাজধানীর রায়েরবাজার থেকে নাশকতার পরিকল্পনা করার সময় আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের ৪ জন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ড্রোন হামলার পরিকল্পনা নিয়ে দেশের মাটিতে সক্রিয় হচ্ছে নব্য জেএমবি। হামলার টার্গেট গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। আর সেই হামলার প্রধান পরিকল্পনাকারী পুলিশের কাছে 'মোস্ট ওয়ান্টেড' বোমা মিজান ওরফে জাহিদ হাসান ফোরকান। পার্বত্য অঞ্চলে সামরিক প্রশিক্ষণ নেয়া তিন নব্য জেএমবির সদস্যকে বিস্ফোরক পদার্থ, বোমা তৈরি ও সংগঠন পরিচালনার কাজে ব্যবহৃত নানা সরঞ্জামসহ রাজধানীর কাফরুল থেকে গ্রেফতারের পর এমন দাবি কাউন্টার টেরোরিজমের। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থী হওয়ায় ভয়ঙ্কর বোমা তৈরিতে পারদর্শী ছিলো নব্য জেএমবির সামরিক শাখার প্রধান বোমা মিজান। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই দাবি করেন সিটিটিসি প্রধান আসাদুজ্জামান। সম্প্রতি পুলিশ বক্সসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বোমা হামলার সঙ্গে মিজান জড়িত ছিলো বলেও জানান তারা৷ কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মো. আসাদুজ্জামান বলেন, তারা বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনা করছিল। তার সর্বশেষ পরিকল্পনা করেছিল ড্রোন দিয়ে স্পর্শকাতর জায়গায় বোমা হামলা করা। এদিকে, অনলাইন প্লাটফর্ম ব্যবহার করে দেশে নাশকতার পরিকল্পনার সময় রাজধানীর রায়েরবাজার থেকে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে এন্টি টেরোরিজম ইউনিট। সিটিটিসি সূত্রে জানা গেছে, জাহিদের জন্ম ১৯৯৪ সালের ১২ অক্টোবর। তার গ্রামের বাড়ি বরগুনার পাথরঘাটায়। তিনি লেমুয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ২০০৯ সালে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পান। এরপর ২০১১ সালে পাথরঘাটা সৈয়দ ফজলুল হক ডিগ্রি কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসিতেও জিপিএ-৫ পান। ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগে ভর্তি হন তিনি। স্নাতক সম্পন্ন করলেও মাস্টার্স শেষ করেননি। সিসিটিসির তদন্ত কর্মকর্তারা জানান, ২০১৬ সালে হলি আর্টিসান হামলার পর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতায় নিষ্ক্রিয় হয় দেশীয় জঙ্গি সংগঠনগুলো। এর ঠিক তিন বছর পর ঢাকা ও চট্টগ্রামে বিভিন্ন পুলিশ বক্সে ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস ব্যবহার করে হামলা ও হামলাচেষ্টার মাধ্যমে নতুন করে আলোচনায় আসে নব্য জেএমবির জঙ্গিরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply