Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » গভীর সমুদ্রে ঘুমিয়ে ৯০০ বছরের প্রাচীন তরোয়াল, কারা তা ব্যবহার করত জানেন?




ইজরায়েলের স্লোমি কাটজিনের স্কুবা ডাইভার হওয়া সার্থক হল। জীবন যে জাদু-বাস্তব তাও অনুভব করলেন তিনি। ডুব দিয়েছিলেন ২০২১-এ, ছুঁয়ে ফেললেন ৯০০ বছর আগের এক সময়কে। আসলে জলের তলা থেকে ক্রুসেডার নাইট যোদ্ধার অস্ত্র আবিষ্কার করেছেন স্লোমি। যে অস্ত্র নিয়ে শুরু হয়েছে গবেষণা। ছোটবেলায় সবাই শুনেছে, সমুদ্রে ডুব দিয়ে মণি-মুক্ত, হিরে-জহরত তুলে আনার গল্প। ভাগ্যে থাকলে এক জীবনে একবার এমন রূপকথার সঙ্গে দেখা হতেই পারে! হয়তো হাত দিয়ে ইতিহাস ছুঁয়ে দেখার সুযোগও হল আপনার। হ্যাঁ, সম্প্রতি তেমনই সুযোগ হয়েছে ইজরায়েলের স্কুবা ডাইভার স্লোমি কাটজিনের। ইজরায়েলের উত্তরাঞ্চলের সমুদ্র উপকূলে সাঁতার অনুশীলন করছিলেন স্কুবা ডাইভার স্লোমি কাটজিন। ওই সময় জলে নীচে গিয়ে তাঁর চোখে পড়ে, জলজ্যান্ত রূপকথা! প্রায় সাড়ে ৩ ফুট দীর্ঘ একটি তলোয়ার আবিষ্কার করেন তিনি। মনে করা হচ্ছে, তলোয়ারটি কমপক্ষে ৯০০ বছরের পুরোনো। এটুকুই নয়, অস্ত্রটি কোনও ক্রুসেডার নাইট যোদ্ধার বলেই আন্দাজ করছেন প্রত্নতাত্বিকরা। আরও শুনুন: একই গাছে ফলবে বেগুন আর টম্যাটো, বিস্ময়কর আবিষ্কার বিজ্ঞানীদের ইউরোপের ইতিহাস বলছে, ১০৯৫ সালে শুরু হওয়া ক্রুসেড চলেছিল প্রায় এক শতাব্দী জুড়ে। সেই সময় জেরুজালেম ও নিকটবর্তী অঞ্চলের দখলে নিতে খ্রিস্টান ধর্মযোদ্ধারা মধ্যপ্রাচ্য চষে বেড়ায়। সেই ধর্মযোদ্ধাদের অস্ত্র হতে পারে এটি। আরেকটি মত, তলোয়ারটি যেখানে পাওয়া গিয়েছে, সেই কারমেল উপকূলে কয়েক শতাব্দী ধরে ঝড়ের সময় বিভিন্ন জাহাজ আশ্রয় নিত। জাহাজি নাবিকদের অস্ত্রও হতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে। উপকূলের যেখানে ঐতিহাসিক তলোয়ারটি খুঁজে পান স্কুবা ডাইভার, সেই জায়গাটির নাম হাইফা। ডাইভার স্লোমি কাটজিন জানিয়েছেন, যখন তিনি তলোয়ারটি খুঁজে পান, তখন দেখেন, অস্ত্রের ওপরে সামুদ্রিক জীব বাসা বেঁধেছে। কোনওভাবে অস্ত্রটি উপরে জমা সমুদ্রের বালি সরে যাওয়াতে জিনিসটা চোখে পড়ে তাঁর। তলোয়ারটি পাথরখচিত ও লোহার হওয়ার কারণে রীতিমতো ভারী, আকৃতিতেও যথেষ্ট বড়। বোঝা যায়, এই তলোয়ার যিনি ব্যবহার করেছেন, তিনি রীতিমতো শক্তিশালী মানুষ ছিলেন। আরও শুনুন: ভাগ্যিস টেবিলের উপর উলটেছিল খাবারের বাটি! তাতেই জন্ম হল সেলোফেন পেপারের মোদ্দা কথা স্কুবা ডাইভার স্লোমি কাটজিনের সঙ্গে রূপকথার দেখা হওয়ার ছিল, তাই দেখা হয়েছে। হয়তো মণি-মুক্ত, হিরে-জহরত নয়, তবু পাথর বসানো এই অস্ত্রেরও দাম কিন্তু কম না। তারচেয়েও বেশি এর ঐতিহাসিক মূল্য। ওই অস্ত্রে যখন হাত দিয়েছেন স্লোমি তখন ম্যাজিক করে হ্যান্ডশেক করে নিয়েছেন আজ থেকে ৯০০ বছর আগের এক যোদ্ধার সঙ্গে! একেই বলে রোমহর্ষক অনুভূতি






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply