Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » যুক্তরাজ্যের একটি পরীক্ষাগারে করোনা পরীক্ষায় ৪৩ হাজার ভুল রিপোর্ট!




করোনা পরীক্ষায় ৪৩ হাজার ভুল রিপোর্ট! করোনা পরীক্ষায় ৪৩ হাজার ভুল রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে

পিসিআর টেস্ট স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থা। গেলো ৮ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের একটি ক্লিনিকের ল্যাব থেকে ওই ভুয়া রিপোর্টগুলো দেয়া হয় বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে। এদিকে গত জুলাই থেকে যুক্তরাজ্যে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পেছনে ভুয়া নেগেটিভ পরীক্ষার প্রভাব পড়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ভুল রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে যুক্তরাজ্যের উলভারহ্যাম্পটনের একটি পরীক্ষাগারে করোনা পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পিসিআর পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ রোগীদের ভুল নেগেটিভ সনদ দেয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থা ইউকেএইচএসএ। স্থানীয় সময় শুক্রবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। গত ৮ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত ইংল্যান্ডের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ইমেনসা হেলথ ক্লিনিকের ওই ল্যাব থেকে ভুয়া রিপোর্ট দেওয়া হয়। প্রায় ৪৩ হাজার ব্যক্তির র‌্যাপিড ল্যাটারাল ফ্লো ডিভাইসে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়ার পর সেখানকার পিসিআর পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল পাওয়া যাওয়ায় জনমনে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। ইতোমধ্যে যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। মিথ্যা ও নেতিবাচক পরীক্ষার ফলাফলের প্রতিবেদনের কারণে সেন্ট্রাল ইংল্যান্ডের ওলভারহ্যাম্পটনের ল্যাবটিতে আরটি-পিসিআর পরীক্ষা সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে তারা। আরও পড়ুন: বিশ্বে করোনায় আরও ৭ হাজার প্রাণহানি দেশটির স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থার এক কার্যনির্বাহী সদস্য বলেন, শুরুতে আমরা শুনেছিলাম, এটি একটি গুজব। পরবর্তীতে আমরা ভুল রিপোর্টের প্রমাণ পাই। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত পরিক্ষাগারটি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপক বলেন, পিসিআর টেস্ট একটি সিস্টেমেটিক প্রক্রিয়া। সিস্টেমে সমস্যা থাকলে পরিক্ষার ফলাফলও ভুল আসবে। আমি ভাবতেই পারছি না, করোনা পরীক্ষায় এমন দায়িত্বজ্ঞানহীনতা খুবই দুঃখজনক। এদিকে শুধু একটি পরীক্ষাগারের এই ভুল ফলকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা বলছে ইউকেএইচএসকে। তবে করোনার মতো স্পর্শকাতর বিষয়ে এমন ভুয়া রিপোর্ট দেয়ার ঘটনা অপ্রত্যাশিত বলছেন বিশ্লেষকরা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply