Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » কোহলির T20I অধিনায়কত্ব ছাড়া নিয়ে এবার মুখ খুললেন সৌরভ




কোহলির বিরাট সিদ্ধান্তে রীতিমতো চমকে গিয়েছিল বাইশ গজ। নিজস্ব প্রতিবেদন: গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিরাট কোহলি (Virat Kohli) জানিয়ে ছিলেন যে, টি-২০ বিশ্বকাপের পরেই কুড়ি ওভারের ফর্ম্যাটে জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসেবে তিনি সরে আসবেন। এরপর তিনি আর ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেবেন না। কোহলির এই সিদ্ধান্তে রীতিমতো চমকে গিয়েছিল বাইশ গজ। তালিকায় ছিলেন স্বয়ং বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন 'মহারাজ'। সৌরভ বলেন,"বিরাট কোহলির টি-২০ অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিলাম। ও নিশ্চই ইংল্যান্ড সফরের পরেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমাদের তরফে ওর ওপর কোনও চাপ দেওয়া হয়নি। ওকে আমরা কিছুই বলিনি। আমরা এরকমটা করি না। কারণ আমি নিজে প্লেয়ার ছিলাম। ব্যাপারটা বুঝি। সব ফর্ম্যাটে দীর্ঘদিন ক্যাপ্টেনসি চালিয়ে যাওয়া অত্যন্ত কঠিন। আমি নিজে ৬ বছর অধিনায়ক ছিলাম। বাইরে থেকে ব্যাপারটা ভাললাগে। সম্মান ও অনান্য বিষয়গুলি মাথায় রেখেই বলছি। ভিতরের আগুনটা জ্বলে। এটা সকল অধিনায়কের সঙ্গে ঘটে। শুধু তেন্ডুলকর বা আমি নই, ধোনি হোক কোহলি! পরে যে ক্যাপ্টেন আসে, তার জন্য কাজটা কঠিন হয়। " অন্যদিকে কোহলির ফর্ম নিয়ে বিন্দুমাত্র চিন্তিত নন সৌরভ। তিনি বলছেন বিরাট একবার আত্মবিশ্বাস পেয়ে গেলেই ফের ব্যাটে রান পাবেন। সৌরভের সংযোজন, "সকলেরই ফর্ম পড়ে। ও ১১ বছর ধরে ক্রিকেট খেলছে। প্রতিটা মরসুম দুর্দান্ত যেতে পারে না। ও মানুষ, কোনও মেশিন নয়। ওর গ্রাফ ওঠা-নামা নিয়ে আমি অবাক হইনি। বিরাট কোহলির মতো একজন প্লেয়ারের এরকমটা হতেই পারে।" জাতীয় দলের টি-২০ অধিনায়কত্ব থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ার তিনদিনের মধ্যেই, কোহলি আরও একটি বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। রয়্যাল চ্য়ালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরেরও ক্যাপ্টেনসি থেকে সরে আসেন তিনি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (WT20) শেষ হলেই কোহলির (Virat Kohli) জায়গায় ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম সংস্করণে ভারতের অধিনায়ক হবেন রোহিত শর্মা (Rohit Sharma)। শুধু তাই নয়, ২০২৩ সালে ভারতের মাটিতে বসবে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের আসর। সেই প্রতিযোগিতার আগে দলকে গুছিয়ে নেওয়ার জন্য 'হিট ম্যান'-এর হাতে হয়তো একদিনের দলের দায়িত্বও তুলে দেওয়া হতে পারে। এমনটাই বিসিসিআই-এর অন্দরমহলের খবর।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply