Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি, রিটেনহাউসের মামলার শুনানি




বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি, রিটেনহাউসের মামলার শুনানি

পুলিশি নির্যাতন ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে ২০২০ সালে তিনজনকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার কাইল রিটেনহাউসের মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি, রিটেনহাউসের মামলার শুনানি আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থন করে এক পর্যায়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে রিটেনহাউজ। তার দাবি, আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায় সে। নীল রঙের স্যুট পরে আদালতে হাজির হয় ১৮ বছর বয়সী কাইল রিটেনহাউজ। স্থানীয় সময় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিন প্রদেশের কেনোশা শহরের আদালতে এই শুনানি হয়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০২০ সালে উইসকনসিনে পুলিশি নির্যাতন ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে তিনজনকে হত্যা করে সে। শুনানিতে সরকার পক্ষের আইনজীবীর একের পর এক প্রশ্নবাণে কান্নায় ভেঙে পড়ে রিটেনহাউস। আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থন করে রিটেনহাউস জানায়, বিক্ষোভ চলাকালে কয়েকজনের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে সে। এক পর্যায়ে তাকে আক্রমণ করতে এলে নিজের কাছে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র বের করে রিটেনহাউস। আর শুধু আত্মরক্ষার্থেই গুলি চালাতে বাধ্য হয় সে। আরও পড়ুন: দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বশেষ বর্ণবাদী প্রেসিডেন্ট মারা গেছেন অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীর অভিযোগ, রিটেনহাউসের কাছে থাকা আগ্নেয়াস্ত্রটি ছিল অবৈধ। বিক্ষোভে অস্ত্র বের না করলে হতাহতের ঘটনা ঘটতো না বলেও দাবি করেন তিনি। এদিকে উইসকনসিন হত্যাকাণ্ড নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে মার্কিন নাগরিকদের মধ্যে। কেউ বলছেন, রিটেনহাউস একজন দেশপ্রেমিক। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতেই গুলি চালায় সে। আবার অনেকে বলছেন, রিটেনহাউস চাইলেই এড়াতে পারতো এই হত্যাকাণ্ড।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply