Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » বড় জয়ে আশা জিইয়ে রাখল ভারত




নিশ্চিত নয় সেমিফাইনাল, তবে চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে বড় জয় ছাড়া অন্য কোনও রাস্তাও খোলা নেই ভারতের সামনে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সেই লক্ষ্যই পূরণ করেছে কোহলির দল। ৬৬ রানের বড় জয়ে ২ পয়েন্ট অর্জনসহ -১.৬০৯ থেকে রানরেট বাড়িয়ে ০.০৭৩ করেছে ভারত। তবে সেমিতে যেতে হলে পরের দুই ম্যাচেও বড় জয়সহ নিউজিল্যান্ড ও আফগানদের পরাজয়ের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে। আবুধাবিতে বুধাবার (৩ নভেম্বর) রাতের ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে আফগান বোলারদের হতাশায় ডুবিয়ে এবারের আসরের সর্বোচ্চ রানের স্কোর গড়ে ভারত। নির্ধারিত ওভারে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২ উইকেটে ২১০। জবাবে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রানে থামে আফগানিস্তানের ইনিংস। এর আগে ব্যাট করতে নেমে ১৪ ওভারেই ১৩৫ রান তুলে ফেলে ভারতের ওপেনিং জুটি। তবে পাঁচ রান পরেই উইকেটের দেখা পায় মোহাম্মদ নবির দল। যাতে ১৪০ রানের মাথায় গিয়ে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। ৭৪ রান করে সপ্তম বোলার করিম জানাতের শিকার হয়ে ফেরেন রোহিত শর্মা। হিটম্যানের ৪৭ বলের এই ইনিংসে ছিল আটটি চারের সঙ্গে তিনটি বিশাল বিশাল ছক্কার মার। এরপর সপ্তদশ ওভারে গুলবাদিন নাইমের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল। যাতে সাত রানের ব্যবধানে দুটি উইকেট খোয়ালো ভারত। ৪৮ বলে দুটি ছক্কা ও ছয়টি চারের মারে ৬৯ রানের ইনিংস খেলে ফেরেন রাহুল। আফগান বোলারদের সাফল্য বলতে অতটুকুই। রেকর্ড গড়তে বাকি কাজটুকু সারেন হার্দিক পান্ডিয়া ও ঋষভ পাণ্ট। এই দুজনে রীতিমত টর্ণেডো ছুটিয়ে মাত্র ২১ বলে ৬৩ রান তুলে নেন। যাতে দুইশ ছাড়ানো ওই বিশাল স্কোর পায় ভারত। পান্ডিয়া মাত্র ১৩ বলে দুই ছক্কা ও চারটি চারে ৩৫ রান করে এবং পাণ্ট সমান বলে তিন ছক্কা ও এক চারে ২৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। আফগান বোলারদের মধ্যে করিম জানাত ও গুলবাদিন নাইব একটি করে উইকেট লাভ করেন। জবাব দিতে নেমেও ব্যাট হাতে সফল হন এই দুই অলরাউন্ডার। নাইব ১৮ রান করে আউট হলেও মাত্র ২২ বলে সর্বোচ্চ ৪২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন জানাত। এছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫ রান আসে অধিনায়ক নবির ব্যাট থেকে। এই দুই মিডল অর্ডার ব্যাটার ছাড়া দলের প্রয়োজনে তেমন সাড়া দেয়নি অন্য কারো ব্যাট, বিশেষ করে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দেয় আফগান টপ অর্ডার। ২১০ রানের বিশাল লক্ষ্যে যেমনটা শুরু করার দরকার ছিল তার ধারেকাছেই যেতে পারেনি আফগান ব্যাটাররা। এ ক্ষেত্রে অবশ্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে ভারতীয় বোলাররা। যার ফলে শেষ পর্যন্ত ৬৬ রানের বড় পরাজয় বরণ করে মাঠ ছাড়ে নবি-রশিদরা। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে মোহাম্মদ শামি ৩টি, অশ্বিন ২টি এবং বুমরাহ ও জাদেজা একটি করে উইকেট দখল করেন। তবে ম্যাচ সেরা হন হিটম্যান রোহিত শর্মা।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply