Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ৫ বছরের জন্য বিরোধী দলনেতাহীন কলকাতা পুরসভা, কেন?




দেবারতি ঘোষ: পাটিগণিতের হিসেবে গতবার সংখ্যা না থাকলেও, সম্মান পেয়েছিলেন। এবার তাও জোটার অবস্থা রইল না। কলকাতা কর্পোরেশনে (KMC) বিরোধী নেতার পদ হারাল বামেরা (Ledt Front)। নজিরবিহীন ভাবে এই প্রথম কলকাতা কর্পোরেশনে (KMC) খালি থাকবে বিরোধী দলনেতার আসন। ১৯৮০ সালের সংশোধিত পুর আইন অনুযায়ী ভোট হয় ১৯৮৫ সালে। সেবার থেকে সংযুক্ত এলাকা-সহ কলকাতার ১৪১টি ওয়ার্ডে ভোট শুরু হয়। ২০১৫ সালে প্রথম ১৪৪টি ওয়ার্ডে ভোট হয়। পরিসংখ্য়ান বলছে, ২০১৫-তে তৃণমূল কংগ্রেস জেতে ১১৪টি ওয়ার্ড, বামেরা জেতে ১৪টি ওয়ার্ড। বিজেপি জেতে ৭টি, কংগ্রেস ৫টি এবং অন্যান্যরা ৩টি ওয়ার্ড। কিন্তু ২০২১-এর ফলাফল আরও লজ্জাজনক। এবার দুই অঙ্কও পেরল না বামেরা। এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত ফলাফলের নিরিখে বামেদের ভাগ্যে জুটেছে ২টি আসন। এছাড়া বিজেপি ৩ এবং কংগ্রেস ২টি আসন। ফলে বিরোধী দলের মর্যাদা পেতে গেল যে সংখ্যক আসন প্রয়োজন, তার ধারে কাছে পৌঁছচ্ছে না বামেরা। ২০১৫-তে বিরোধী নেত্রী হন ১২৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে জিতে আসা রত্না রায় মজুমদার। চিপ হুইপ হন ১১১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে চিতে আসা চয়ন ভট্টাচার্য। পুর আইন অনুযায়ী, বিরোধী দলের মর্যাদা পেতে ১০ শতাংশ আসন পেতে হয়। অর্থাৎ ১৪৪টার মধ্য়ে ১৫টা আসন পেতে হবে। কিন্তু এবার বিরোধীদের মধ্যে কেউ দু অঙ্কের ঘরে পৌঁছতে না পারায় আগামী ৫ বছরের জন্য বিরোধী দলনেতা পাবে না কলকাতা পুরসভা (KMC)।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply