Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » ভয়ঙ্কর দুর্দশা ইংল্যান্ডের, পেসারকেই করতে হল স্পিন!




দলে কোনও বিশেষজ্ঞ স্পিনার নেই। চোটের কারণে নামতে পারেননি জো রুটও। এমনই দুর্দশাজনক পরিস্থিতিতে রোববার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অবশেষে বল হাতে নিয়ে স্পিন করলেন ইংলিশ পেসার ওলিয়ে রবিনসন। অবশ্য এতে কোনও সাফল্য না পেলেও সামাজিক মাধ্যমে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় বিষয়টি। ভাইরাল হয়ে যায় রবিনসনের স্পিন বোলিংয়ের ভিডিও। এদিন অ্যাডিলেডে স্বাগতিকদের দ্বিতীয় ইনিংসের ৩৫তম ওভারে এসে আচমকা স্পিন বোলিং করা শুরু করেন রবিনসন। সাফল্য না পেলেও মাত্র তিনটি রান দেন ওই ওভারে। যার ভিডিও রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক মাধ্যমে। তারপর ৩৭তম ওভারে এসেও স্পিন বোলিং করেন রবিনসন। যিনি এর খানিকক্ষণ আগেই অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে আউট করেন নিজের স্বাভাবিক পেস বোলিং দিয়েই। আর এতেই প্রশ্ন উঠেছে, কেন রবিনসনের মতো একজন তুখোড় পেস বোলারকে অগত্যা স্পিন বোলিং করতে হল? জবাবটা ইংল্যাড দলের সদস্য বা টিম ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে পাওয়া না গেলেও কিছু যুক্তি দেখিয়েছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকগণ। বিশেষজ্ঞদের মতে, ইংল্যান্ডের ভুল রণ কৌশলের জন্যই রবিনসনকে বাধ্য হয়েই স্পিন বোলিং করতে হয়েছে। অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত চলতি অ্যাশেজ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে কোনও বিশেষজ্ঞ স্পিনারকে দলে রাখেনি ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে যে দায়িত্বটা নিজেই সামাল দেন রুট। ২০ ওভার বল করে ৭২ রান দিয়ে একটি উইকেটও নেন ইংলিশ ক্যাপ্টেন। অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেও বল করেন রুট। কিন্তু চতুর্থ দিনের সকালে অনুশীলনে চোট পান তিনি। যে কারণে রোববার সকালে আর মাঠে নামেননি অধিনায়ক। অথচ পিচ থেকে যে স্পিনাররা সাহায্য পাচ্ছেন, সেটার প্রমাণ আগেই দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা স্পিনার ন্যাথান লিয়ন। সেই পরিস্থিতিতে রবিনসনকেই অগত্যা স্পিন বোলিং করতে দেন অস্থায়ী অধিনায়ক বেন স্টোকস। অবশ্য ইংলিশ এই পেসার নাকি ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজ দল সাসেক্সের হয়েও নেটে স্পিন বোলিং করার নজির আছে। এদিকে এমনই অদ্ভুত পরিস্থিতির মধ্যেই ৯ উইকেটে ২৩০ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংসও ডিক্লেয়ার করে দেয় অস্ট্রেলিয়া। যার ফলে অ্যাশেজের দ্বিতীয় টেস্টে ৪৬৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়িয়েছে ইংল্যান্ডের সামনে। যে লক্ষ্যে ছুটতে অথবা ম্যাচ বাঁচাতে ব্যাট করতে নেমে ৭০ রানেই ৩টি উইকেট হারিয়ে বসেছে সফরকারী দল। যার মধ্যে দুটিই তুলে নিয়েছেন জাই রিচার্ডসন এবং অপরটি ঝুলিতে পুরেছেন অভিষিক্ত প্রোটিয়া বংশোদ্ভূত পেসার মাইকেল নেসের। চতুর্থ দিন শেষে ইংলিশদের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৮২ রান। অধিনায়ক জো রুট ২৪ রানে স্টার্কের শিকার হন। বেন স্টোকস ৪০টি বল মোকাবেলা করে ৩ রানে অপরাজিত আছেন। তবে পঞ্চম দিনে এখনও ৩৮৬ রানে পিছিয়ে থাকা ইংল্যান্ডের পরাজয় কেবল সময়ের অপেক্ষা মাত্র।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply