Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » ভয়াবহ খাদ্য সঙ্কটের মুখে পড়তে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র




যুক্তরাষ্ট্রের বাইডেন প্রশাসনের মহামারি ত্রাণ ও শিশুদের খাদ্য সহায়তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তীব্র খাদ্য সংঙ্কটে পড়তে যাচ্ছে দেশটির ২ কোটি বেশি মানুষ। খোদ মার্কিন পরিসংখ্যান বিভাগ এমন তথ্য প্রকাশ করেছে। সরকারি সহায়তা বন্ধ ও নিত্যপণ্যের দাম বাড়ায় দেশটির হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ্যা। করোনা মহামারিতে অর্থনৈতিক সঙ্কটে গোটা বিশ্ব। দীর্ঘ লকডাউনের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন বহু মানুষ। বন্ধ রয়েছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এর ব্যতিক্রম নয় যুক্তরাষ্ট্রও। মহামারির শুরু পর দেশটিতে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে বেকারত্বের হার। এতদিন কর্মহীন লোকদের সরকারের পক্ষ থেকে অর্থ সহায়তা দেয়া হলেও বন্ধ হতে বসেছে সেই সাহায্য। এমন প্রেক্ষাপটে নতুন শঙ্কার কথা জানালো যুক্তরাষ্ট্রের পরিসংখ্যান বিভাগ। সংস্থাটি বলছে, দিন দিন খাদ্য সংকটের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে মার্কিন পরিবারগুলো। আরও পড়ুনঃ মালয়েশিয়ায়-বাংলাদেশিসহ-অবৈধদের-জন্য-সুখবর সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া মহামারি ত্রাণ এবং শিশুদের জন্য বিশেষ মাসিক প্যাকেজ ফুরিয়ে যাওয়ায় অতিরিক্ত এই চাপের মুখে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বিশেষ এই প্যাকেজগুলো পুনরায় চালুর সিদ্ধান্ত নিলেও সিনেটে আইনটি বাতিল হয়ে যায়। গত ১ থেকে ১৩ ডিসেম্বর চলা সমীক্ষা অনুসারে বর্তমানে খাদ্য সংকটের হার ৯ দশমিক ৭ শতাংশ, যা গত ৫ মাসের তুলনায় সর্বোচ্চ। গত বছরের তুলনায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দামও বেড়েছে প্রায় ৬ দশমিক ৪ শতাংশ। খাদ্য ব্যাংকগুলোতে চাহিদা বাড়ছে দিন দিন। হাসপাতালগুলোতে অপুষ্টিতে ভোগা শিশুর সংখ্যাও বেড়ে চলেছে। গত ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশেষ এই প্যাকেজটির মেয়াদ বাড়ানো হলেও সিনেটে আইনটি বাতিল হওয়ায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এই কর্মসূচি। সংস্থাটি আশংকা প্রকাশ করে বলেছে, বিশেষ প্যাকেজটি স্থায়ী করা না হলে কম বয়সীদের দারিদ্র্যের হার বেড়ে যাবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply