Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » যুক্তরাষ্ট্রে গুলিতে বাংলাদেশি নিহত: তিন দিনেও আটক হয়নি কেউ




যুক্তরাষ্ট্রে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে গুলিতে বাংলাদেশি নিহতের তিন দিন পেরিয়ে গেলেও আটক হয়নি কেউ। এখনো এর কারণও বের করতে পারেনি স্থানীয় পুলিশ। এর প্রতিবাদে শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) জুমার নামাজের পর নিউইয়র্কের ওজোন পার্ক এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। সমাবেশে তারা অবিলম্বে মোদাসসের খন্দকার হত্যার কারণ উদঘাটন করে হত্যাকারীকে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। বাংলাদেশিদের ক্ষোভ ও দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন মূলধারার রাজনীতিকরাও। হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের আশ্বাস দেন তারা। স্থানীয় সময় বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাত ১২টার দিকে নিজ বাড়ির সামনে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত হন মোদাসসের খন্দকার। নিউইয়র্কের ওজন পার্ক এলাকায় নিজ বাসার সামনে গাড়ি ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন তিনি। আরও পড়ুন: ভূমধ্যসাগরে মারা যাওয়া এক বাংলাদেশির মরদেহ দেশে পৌঁছেছে এ সময় বাধা দিলে মোদাসসের খন্দকারকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় ওই ছিনতাইকারী। মুহূর্তেই মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। পরে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে জামাইকা হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত মোদাসসের খন্দকার নিউইয়র্কের জন এফ কেনেডি বিমানন্দরে কাজ করতেন। তার বাড়ি বাংলাদেশের মানিকগঞ্জে। তিনি মা, স্ত্রী ও পাঁচ বছরের এক ছেলেসহ নিউইয়র্কের ওজোন পার্ক এলাকায় বাস করতেন। এ ঘটনার পর বাংলাদেশি কমিউনিটিতে শোকের পাশাপাশি আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। কমিউনিটি অ্যাক্টভিস্ট খায়রুল ইসলাম খোকন বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে নিউইয়র্কে গুলির ঘটনা অনেক বেড়ে গেছে। গত এক মাসে ৭ পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। অনেক সাধারণ মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন। এসব দ্রুত থামাতে হবে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply