Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » গোলবন্যার ম্যাচে জয়ের হাসি অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের




গোলবন্যার ম্যাচে জয়ের হাসি অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের

সাত গোলের জমজমাট লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত জয় পেল অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) গেটাফের বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ৪-৩ গোলের ব্যবধানে জয় পায় দিয়েগো সিমিওনের শিষ্যরা। এই জয়ে বার্সেলোনাকে পেছনে ফেলে পয়েন্ট তালিকার চারে উঠে এসেছে গত মৌসুমের লা লিগা চ্যাম্পিয়ন অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। এদিন নিজেদের মাঠ ওয়ান্ডা মেট্রিপলিতানোতে অ্যাতলেট্টিরা আতিথ্য দেয় পয়েন্ট তালিকার ১৫তম দল গেটাফেকে। মৌসুমে ধারাবাহিকতার অভাবে লিগ রেসে পিছিয়ে পড়া অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ এই ম্যাচে ৪-৪-২ ফর্মেশনে দল সাজায়। মাঠের খেলায় অবশ্য পাল্লা দিয়ে লড়েছে পয়েন্ট তালিকার ১৫ নম্বরে থাকা গেটাফে। পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে মাদ্রিদের দলের পায়ে যেখানে ৫১ শতাংশ সময় বল ছিলো, সেখানে গেতাফে ৪৯ শতাংশ সময় বল নিজেদের কাছে রেখেছে। তবে গোলে শট নেবার বেলায় এগিয়ে আছে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। তাদের ৭ শটের বিপরীতে গেটাফে অন টার্গেট শট নিতে পেরেছে ৩ টি। গোলবন্যার এই ম্যাচে প্রথমে এগিয়ে যায় স্বাগতিক অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। ম্যাচের ১৯ মিনিটে আঞ্জেল কোরেইয়ার গোলে এগিয়ে যায় অ্যাতলেট্টিরা। সুয়ারেজের ক্রস থেকে দারুণ দক্ষতায় গোলটি করেন এই আর্জেন্টাইন। অবশ্য অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ এগিয়ে যেতে পারতো খেলার নয় মিনিটের সময়েই। গেটাফে গোলরক্ষক ডিবক্সে সুয়ারেজকে ফেলে দিলে রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান। সুয়ারেজের নেওয়া স্পটকিক ফিরিয়ে দেন গেটাফে গোলরক্ষক। আরো পড়ুন: ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা চেলসির কোরেইয়ার গোলের পর গেটাফের খেলোয়াড়রা গোলের আগে ফাউলের অভিযোগ তুলে উত্তেজিত আচরণ করলে রেফারি মাক্সিমোভিচকে হলুদ কার্ড দেখান এবং ভিএআরে চেক করে গোলটিকে বৈধ বলে ঘোষণা দেন। ২৭ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ম্যাথিয়াস কুনহার গোলে ২-০ গোলের লিড পায় মাদ্রিদের ক্লাবটি। লরেন্তের দারুণ ক্রস ধরে লেমার পাস বাড়িয়ে দেন কুনহাকে। গোলের কাছেই দাঁড়িয়ে থাকা কুনহা কোন ভুল না করেই বলটি গোলে পাঠিয়ে দেন। এর মাত্র তিন মিনিটের মাথায় রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ধারে খেলতে আসা বোরহা মায়োরাল গেটাফের পক্ষে একটি গোল শোধ করেন। এর পর গেটাফে খেলায় প্রাধান্য বিস্তার করতে থাকে। ৩৬ মিনিটের সময় অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের ডিবক্সে কুনহার হাতে একটি বল এসে লাগে। গেটাফের খেলোয়াড়েরা হ্যান্ডবলের আবেদন করলে ভিএআরে চেক করে রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজায়। অবলাককে পরাজিত করে গোল করেন উনাল। খেলায় ২-২ গোলের সমতা আসে। ৪২ মিনিটে ওয়ান্ডা মেটোপলিতানোকে নিস্তব্ধ করে দিয়ে গেতাফের খেলোয়াড়েরা উল্লাসে ফেটে পড়ে। দারুণ এক ক্যামব্যাকের গল্প লিখে ম্যাচে এগিয়ে যায় গেটাফে। ঠিক আগের গোলের কপি পেস্ট করে স্পট কিকে দলকে এগিয়ে দেন উনাল। তার জোরা গোলে ম্যাচ জেতার স্বপ্ন দেখতে থাকে সফরকারী গেটাফে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply