Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » রুশ-ইউক্রেন তৃতীয় বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত এল?




রুশ-ইউক্রেন তৃতীয় বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত এল? যুদ্ধবিরতির লক্ষ্যে বেলারুশে তৃতীয় দফা বৈঠক শেষ করেছে ইউক্রেন-রাশিয়া। বৈঠকে কিছুটা অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছে কিয়েভ। তবে সামান্য অগ্রগতির কথা বলা হলেও ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে সামরিক অভিযান অব্যাহত রেখেছে রাশিয়া। দুই দেশের চলমান যুদ্ধে হুমকির মুখে পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতি। এরইমধ্যে তেলের দাম বিশ্ব বাজারে গত ১৩ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থায় পৌঁছেছে। সোমবার (৭ মার্চ) রাতে দেশটির বিভিন্ন শহরে একের পর এক রকেট হামলার ঘটনা ঘটে। মধ্যরাতে একের পর এক রকেট হামলায় কেঁপে ওঠে ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় খারকিভ শহর। ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীকে লক্ষ্য করে চলে দফায় দফায় রকেট বিস্ফোরণ। একই সঙ্গে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের নিয়ন্ত্রণ নিতে মরিয়া রুশ বাহিনী। সামরিক অভিযানের ১৩তম দিনেও চলে গোলাবর্ষণ। সোমবার কিয়েভ উপকণ্ঠে ট্যাংক থেকে হামলা চালায় রুশ সেনারা। হামলা প্রতিহত করতে প্রাণপণ লড়ে যাচ্ছে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী। এরমধ্যেই তৃতীয়বারের মতো বেলারুশে শান্তি আলোচনায় বসে ইউক্রেন ও রাশিয়া। আলোচনায় কিছু অগ্রগতি হয়েছে বলে জানায় ইউক্রেন। বৈঠকে সাময়িক যুদ্ধবিরতির মাধ্যমে ইউক্রেনের সাধারণ মানুষকে বেলারুশ ও রাশিয়ায় সরিয়ে নেওয়ার প্রস্তাব দেয় মস্কো। তবে ওই প্রস্তাব সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে কিয়েভে। আরও পড়ুন: নির্বাসিত ইউক্রেনীয় সরকার গঠনের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র এমন পরিস্থিতে আগামী বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) তুরস্কে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক হতে পারে বলে খবর দিচ্ছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনের বিজয় সুনিশ্চিত বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। সোমবার সন্ধ্যায় এক ভিডিও বার্তায় বলেন, তিনি এখনও কিয়েভের কার্যালয়েই অবস্থান করছেন। জেলেনস্কি বলেন, যারা বলছেন, আমি দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছি তাদের বলতে চাই, আমি এখনও পালাইনি। কিয়েভে নিজের অফিসেই অবস্থান করছি। এই যুদ্ধে আমাদের জয় হবেই। একইদিন ইউক্রেনের মানবিক পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। দেশটিতে মানবিক বিপর্যয় ঠেকাতে এবং সাধারণ মানুষের প্রাণহানি ঠেকাতে অবিলম্বে রাশিয়াকে সামরিক অভিযান বন্ধের আহ্বান জানায় অধিকাংশ দেশ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply