Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » Europe-র বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন, Energodar-এ আক্রমণ Russia-র




Europe-র বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন, Energodar-এ আক্রমণ Russia-র এর আগে, ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ জানায় যে রাশিয়ান সৈন্যরা প্লান্টটি দখলের চেষ্টা করছে এবং ট্যাঙ্ক নিয়ে শহরে প্রবেশ করেছে নিজস্ব প্রতিবেদন: ইউরোপের (Europe) বৃহত্তম পারমা

ণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, ইউক্রেনের (Ukraine) জাপোরিঝিয়া (Zaporizhzhia) শুক্রবার ভোরে রাশিয়ান সৈন্যদের আক্রমণের পরে আগুনে পুড়ে যায়। কর্মকর্তারা এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখেন। নিকটবর্তী শহরের এনারগোদারের (Energodar) মেয়র এই কথা জানিয়েছেন। দিমিত্রো অরলভ (Dmytro Orlov) বলেছেন, স্থানীয় বাহিনী এবং রাশিয়ান সৈন্যদের মধ্যে তীব্র লড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে। অন্যদিকে, ইউক্রেনের বিদেশ বিষয়ক মন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা (Dmytro Kuleba) বলেছেন যে রাশিয়া পরমাণু কেন্দ্রের চারদিক থেকে আক্রমণ শুরু করেছে। তিনি আরও বলেন যে এই কেন্দ্রটি ধ্বংস হলে কী পরিমাণ ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে তা সকলেই জানেন। কুলেবা বলেন, "ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র জাপোরিঝিয়া এনপিপি-তে রাশিয়ান সেনাবাহিনী চারদিক থেকে গুলি চালাচ্ছে। আগুন ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে। যদি এটি বিস্ফোরিত হয় তবে এটি চেরনোবিলের (Chernobyl) তুলনায় দশ গুণ বড় হবে!" এর আগে, ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ জানায় যে রাশিয়ান সৈন্যরা প্লান্টটি দখলের চেষ্টা করছে এবং ট্যাঙ্ক নিয়ে শহরে প্রবেশ করেছে। ওরলভ তার টেলিগ্রাম চ্যানেলে বলেছেন, "ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভবন এবং ইউনিটগুলিতে ক্রমাগত শত্রুর গোলাবর্ষণের ফলে, জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুন লেগেছে।" এই ঘটনাকে তিনি বিশ্ব নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে উল্লেখ করেছেন। যদিও তিনি ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ জানাননি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে এই প্রথম একটি ইউরোপীয় রাষ্ট্রে সবচেয়ে বড় আক্রমণের ফলে হাজার হাজার মানুষ মারা গেছে বা আহত হয়েছে। ইউক্রেনের এক মিলিয়নেরও বেশি মানুষ পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে এবং বিশ্বকে ২১ শতকের বৃহত্তম সামরিক সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছে।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply