Sponsor



Slider

বিশ্ব

জাতীয়

রাজনীতি


খেলাধুলা

বিনোদন

ফিচার


যাবতীয় খবর

জিওগ্রাফিক্যাল

ফেসবুকে মুজিবনগর খবর

» » » » » রুশ বাহিনীকে ঠেকানো অসম্ভব: পুতিন




রুশ বাহিনীকে ঠেকানো অসম্ভব: পুতিন ইউক্রেনের আশপাশের বিভিন্ন দেশে ন্যাটোর সামরিক সক্ষমতা বাড়ানোর ঘোষণার পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ভারী অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম দিয়ে রুশ বাহিনীকে ঠেকানো অসম্ভব।

সম্প্রতি এক বিবৃতিতে পুতিন বলেন, ইইউ ও ন্যাটো সীমা লঙ্ঘন করলে তার পরিণতি হবে ভয়াবহ। অভিযান শেষ না হওয়া পর্যন্ত রুশ বাহিনী থামবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রাশিয়ার হামলার শঙ্কায় নিজেদের সামরিক শক্তি বাড়াতে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ৪ দশমিক ৭৫ বিলিয়ন ডলারের সমরাস্ত্র কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পোল্যান্ড। এ ছাড়া রুশ হামলার জবাব দিতে রাশিয়ার সীমান্তবর্তী দেশ হাঙ্গেরিতে ৮০০, রোমানিয়ায় প্রায় সাড়ে তিন হাজার, বুলগেরিয়ায় ৯০০, স্লোভেনিয়ায় দুই হাজারের বেশি ও বাল্টিক অঞ্চলের দেশগুলোতে মোট ৪০ হাজার ন্যাটো সেনাকে যুদ্ধ জাহাজ, কামান, গোলাবারুদ, যুদ্ধ বিমানসহ ভারী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রস্তুত রাখার কথা জানিয়েছেন পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ। এর পরই ইউক্রেনে অভিযান থামবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন পুতিন। আরও পড়ুন: শতাধিক রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করল তিন দেশ এদিকে ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে রাশিয়া আরও আগ্রাসী ও হিংসাত্মক হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ন্যাটো প্রধান স্টলটেনবার্গ। মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে তিনি জানান, ইউক্রেনের পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলে রুশ বাহিনী আরও বিধ্বংসী হয়ে উঠবে এবং নতুন সমরাস্ত্র নিয়ে রাশিয়ার সেনারা বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়ে দনবাস হয়ে অধিকৃত ক্রিমিয়া পর্যন্ত ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে পারে। যদিও রাশিয়ার বিপক্ষে কিংবা ইউক্রেনের হয়ে সরাসরি যুদ্ধে না জড়ানোর বিষয়টি আবারও খোলাসা করেছেন স্টলটেনবার্গ। তবে রুশ হামলা ঠেকাতে ইউক্রেনকে আরও সাঁজোয়া ট্যাংক, যুদ্ধবিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রসহ ভারী সমরাস্ত্র জোগান দেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানান তিনি। এ সময় রুশ বাহিনীর আগ্রাসনের কারণে মস্কোর সঙ্গে সব ধরনের আলোচনার পথ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন নরওয়ের অভিজ্ঞ এই সামরিক বিশেষজ্ঞ।






«
Next
Newer Post
»
Previous
Older Post

No comments:

Leave a Reply